বিলুপ্ত হওয়া গাজীর গান বা গাজী পীরের বন্দনা এখনো চলে সন্দ্বীপে

Sonali News    ০৯:২৪ পিএম, ২০২১-০৪-১৭    260


বিলুপ্ত হওয়া গাজীর গান বা গাজী পীরের বন্দনা এখনো চলে সন্দ্বীপে

গাজী আবু্ল হাসেম বছরের এই দিনে তিনি বাড়ি বাড়ি বেড়িয়ে পড়েন এই গাজির গান শুনাতে। এমনকি সন্দ্বীপের বাইরেও যেতে হয় তাকে।

গাজীর গান বা গাজী পীরের বন্দনা বাংলাদেশের ফরিদপুর, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম ও সিলেট অঞ্চলে এক সময়ের প্রচলিত এক ধরনের মাহাত্ম্য গীতি। গাজী পীর সাহেব মুসলমান হলেও অন্যান্য ধর্মের অনুসারীদের মধ্যে হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রীস্টান ও ইসলাম ধর্মের অনুসারীদের একটি অংশ তার ভক্ত ছিলো। আর ভক্তরাই এ গাজীর গানের আসর বসাতো। গান চলার সময় আসরে উপস্থিত দর্শক-শ্রোতারা তাদের মানতের অর্থ গাজীর উদ্দেশ্য দান করতো। বর্তমানে এ গানের প্রচলন নেই বললেই চলে। কিন্তু সন্দ্বীপে প্রতিবছর বৈশাখ জৈষ্ঠ মাসে হঠাৎ বাড়ি বাড়ি এসে গাজীর বন্দনা গীতি গান এমন একজনের দেখা মেলে গতকাল।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় প্রতি বাড়ি বাড়ি গিয়ে আবুল হাশেম নামে এক ব্যক্তি তামার একটি খুটির মাথায় বাঁকা চাঁদ সদৃশ্য একটি পিতলের মাথায় বিভিন্ন প্রকার জরি সুতা ও সিঁদুর দিয়ে উঠানে পুঁতে দেন। বাড়ির বউ ঝিরা সেটার গোড়ালিতে এসে পানি ঢেলে প্রনাম করেন এবং মানত করে টাকা ও চাউলের ঢালা সাজিয়ে সেখানে রাখেন এরপর গাজী তার সুরেলা কন্ঠে গানের সুরে সুরে অনেক উপদেশ বানী শুনান। তাতে সবাই আনন্দিত, পুলকিত ও আবেগ প্রবন হয়ে উঠেন।

আবুল হাশেম বা গাজী আবু্ল হাসেম নামে সে ব্যক্তির সাথে কথা বলে জানা যায় তার বাড়ি সন্দ্বীপের মগধরা ইউনিয়নের পেলিশ্যার বাজার সংলগ্ন জমার বাড়ি। বছরের এই দিনে তিনি বাড়ি বাড়ি বেড়িয়ে পড়েন এই গাজির গান শুনাতে। এমনকি সন্দ্বীপের বাইরেও যেতে হয় তাকে।

কেন এ গাজীর গান, এটির উদ্দেশ্য বা মাহাত্য জানতে চাইলে তিনি বলেন সন্তান লাভ, রোগব্যাধির উপশম, অধিক ফসল উৎপাদন, গো-জাতি ও ব্যবসা-বাণিজ্যের উন্নতি এরূপ মনস্কামনা পূরণার্থে গাজীর গানের পালা দেওয়া হতো এ নিয়ে আসর বসিয়ে কিছু লৌকিক কার্যক্রমসহ গাজীর গান পরিবেশিত হতো।বর্তমানে সেভাবে কেউ আসর বসায়না বলে আমরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে এই গান পরিবেশন করি। বিনিময়ে নগদ টাকা, চাউল ও বিভিন্ন সামগ্রী দেয়। তবে এতে আমাদের পেট চলেনা। বংশানুক্রমে বাপ দাদারা করেছে বলে আমারও সেটি করতে হয়।

তিনি আরো বলেন মূল গানে প্রথমে গাজীর প্রশংসা করা হতো যেমন "পূবেতে বন্দনা করি পূবের ভানুশ্বর, এদিকে উদয় রে ভানু চৌদিকে পশর" তারপরে বন্দনা করি গাজী দয়াবান, উদ্দেশে জানাই ছালাম হিন্দু মুছলমান’ বন্দনা তথা প্রশংসার পরে গাজীর জীবন বৃত্তান্ত, দৈত্য-রাক্ষসের সঙ্গে যুদ্ধ, রোগ-মহামারী, বালা-মুসিবত, খারাপ আত্মার সাথে যুদ্ধ, অকুল সমুদ্রে ঝড়-ঝঞ্ঝা থেকে পুণ্যবান ভক্ত সওদাগরের নৌকা রক্ষার কাহিনী এ সমস্ত গানে বর্ণনা করি।

এছাড়া গানের মাধ্যমে তৎকালিন সমাজের বিভিন্ন অপরাধ, বিচার ও সমস্যা-সম্ভাবনা তুলে ধরা হতো। কিছু কিছু গানে দধি ব্যবসায়ী গোয়ালার ঘরে দুগ্ধ থাকা সত্ত্বেও গাজীকে না দেওয়ার শাস্তি বর্ণণা করা হতো।

একটি গানে ইতিহাস বর্ণণা করতে গিয়ে বলা হয়েছে, গাজী পীর জমিদারের অত্যাচার থেকে প্রজা সাধারণকে রক্ষা করতেন। এমনকি কোনো কোনো ভক্ত মামলা জয়ী হওয়ার আশ্বাসও ছিলো একটি গানে। গানটির ছন্দ ছিলো এরকম- ‘"গাজী বলে মোকদ্দমা ফতে হয়ে যাবে। তামাম বান্দারা মোর শান্তিতে থাকিবে’" এরূপ গানে ধর্মীয় ও বৈষয়িক ভাবনা একাকার ছিলো।

ইতিহাস ঘেঁটে জানা যায় বাংলাদেশের নিম্নাঞ্চলে পট বা চিত্র দেখিয়ে গাজীর গান গেয়ে বেড়াতো বেদে সম্প্রদায়ের একটি অংশ। তার মধ্যে মুন্সীগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, কুমিল্লা, চাঁদপুর, ফরিদপুর, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম ও সিলেট, নরসিংদী অঞ্চলেই এমন বেদেদের বিচরণ ছিল বেশি। এ সম্প্রদায়ের মানুষ গ্রামে গ্রামে গিয়ে গাজীর গান গেয়ে ধান অথবা টাকা নিতো, যা দিয়ে তাদের জীবিকা নির্বাহ করতো। এভাবে করে একসময় গাজীর গান বাংলাদেশের লোকসংস্কৃতির একটি অংশ হয়ে যায়।

গাজীর গান গাওয়ার সময় ছিল কার্তিক-অগ্রহায়ণ মাস। যে সময় কৃষকের উঠোনে ধান থাকে। অন্য সময় কখনোই বেদেদের গাজীর গান গাইতে দেখা যেতো না। গাজীর পটের ওপর ভিত্তি করে একটি প্রবাদ আছে 'অদিনে গাজীর পট'। সঠিক সময় ছাড়া বা অসময়ে কেউ কিছু করলে এই প্রবাদটি বলা হতো।

এছাড়াও গাজীর পট গান বা চিত্রভিত্তিক গানের আসরে কারবালার ময়দান, কাশ্মীর, মক্কার কাবাগৃহ, হিন্দুদের মন্দিরের মতো পবিত্র স্থানগুলো বিশেষ চিহ্নে আঁকা থাকতো। অনেক সময় এসব চিহ্ন মাটির সরা বা পাতিলেও আঁকা হতো। পট হচ্ছে মূলত মারকিন কাপড়ে আঁকা একটি চিত্রকর্ম, যা প্রস্থে চার ফুট, দৈর্ঘ্যে সাত-আট ফুটের মতো। মাঝখানের বড় ছবিটি পীর গাজীর। তার দুই পাশে ভাই কালু ও মানিক। গাজী বসে আছে বাঘের ওপর। এই ছবিটি কেন্দ্র করে আরও আছে কিছু নীতি বিষয়ক ছবি বা চিত্র। মনোরম ক্যানভাসের এ পটটির বিভিন্ন অংশের ছবি লাঠি দিয়ে চিহ্নিত করে গীত গাওয়া হয়। গানের দলে ঢোলক ও বাঁশিবাদক এবং চার-পাঁচজন দোহার থাকতো। এদের দলনেতা গায়ে আলখাল্লা ও মাথায় পাগড়ি পরিধান করে একটি আসা দন্ড হেলিয়ে-দুলিয়ে এবং লম্বা পা ফেলে আসরের চারদিকে ঘুরে ঘুরে গান গাইতো। আর দোহাররা মুহুর্মুহু বাদ্যের তালে তালে এ গান পুনরাবৃত্তি করতো।

মুলত আকাশ সংস্কৃতি ও আধুনিকতার ছোঁয়ায় মানুষের মাঝে এটির আবেদন দিন দিন কমে এসেছে, এবং মানুষের আস্থা ও বিশ্বাসের জায়গা দিন দিন কঠিন হয়ে যাওয়ার কারনে এটি এখন একেবারে বিলুপ্ত প্রায় বলা চলে। তবে গ্রামের বয়োবৃদ্ধ ও সংস্কৃতি কর্মীরা এসমস্ত গানের পালা গুলোকে পৃষ্টপোষকতা করে টিকিয়ে রাখা জরুরী বলে মনে করছেন। এজন্য বিভিন্ন এনজিও প্রতিষ্ঠান বা বিভিন্ন ক্লাব ও ধনাঢ্যরাও এগিয়ে আসা উচিত বলে তারা মনে করেন।

# বাদল রায় স্বাধীন


রিলেটেড নিউজ

মুস্তাফিজুর রহমান খোকনের কাব্যগ্রন্থ

মুস্তাফিজুর রহমান খোকনের কাব্যগ্রন্থ "কবিতার মত নদী" প্রকাশিত

Sonali News

বিশিস্ট কবি ও কলামিস্ট মো: মুস্তাফিজুর রহমান খোকন তার সদ্য প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ "কবিতার মত নদী" ... বিস্তারিত

সন্দ্বীপেও হতে পারে বইমেলা, প্রকাশনা উৎসব, লেখক-সাংবাদিক-পাঠক মিলনমেলা

সন্দ্বীপেও হতে পারে বইমেলা, প্রকাশনা উৎসব, লেখক-সাংবাদিক-পাঠক মিলনমেলা

Sonali News

এবারের বইমেলায় অক্ষরবৃত্ত প্রকাশন থেকে প্রকাশিত হচ্ছে সন্দ্বীপের ছয়জন লেখকের ছয়টি বই। এর মধ্যে ... বিস্তারিত

হৃদয়ে ভালোবাসার চাষ করি

হৃদয়ে ভালোবাসার চাষ করি

Sonali News

কাজী জিয়া উদ্দিন মাদার তেরেসার সঙ্গে যারা দেখা করতে যেতেন তাদের তিনি একটি ‘বিজনেস কার্ড’ দিতেন ... বিস্তারিত

শান্তি, আহারে শান্তি

শান্তি, আহারে শান্তি

Sonali News

কাজী জিয়া উদ্দিন পারো কি বলতে পারো শান্তি কোথায় লুকিয়ে আছেবুকের ভেতর মৌনতার এক গহিন কোণেভালবাসার ... বিস্তারিত

জনান্তিকে আমি ও আমার প্রভু

জনান্তিকে আমি ও আমার প্রভু

Sonali News

কাজী জিয়া উদ্দিনশৈশব কৈশৈার পেরিয়ে গেলোযৌবনেও আসছে ভাটি আরো যদি বেঁচেই থাকি ধরতে হবে শক্ত লাঠি, ... বিস্তারিত

স্বপ্ন বিনাশ : এস এম জাকিরুল আলম মেহেদী

স্বপ্ন বিনাশ : এস এম জাকিরুল আলম মেহেদী

Sonali News

অহনা শ্যাম বর্ণের কন্যা শিশু চেহারায় কি যে মায়া। দেখলে হাত বাড়িয়ে আদর করতে ইচ্ছে করে। সামনাসামনি ... বিস্তারিত

সর্বশেষ

সন্দ্বীপের ৫ শতাধীক জেলেকে ভয় ভীতি দেখিয়ে নদী থেকে বিতারিত

সন্দ্বীপের ৫ শতাধীক জেলেকে ভয় ভীতি দেখিয়ে নদী থেকে বিতারিত

Sonali News

# বাদল রায় স্বাধীন সন্দ্বীপে সংলগ্ন মেঘনার মোহনায় টিন জাল দিয়ে ইলিশ মাছ ধরতে যাওয়া প্রায় ৫ শতাধীক ... বিস্তারিত

সভা-সমাবেশ করে সিআরবি রক্ষার দাবি নিউইয়র্ক প্রবাসীদের

সভা-সমাবেশ করে সিআরবি রক্ষার দাবি নিউইয়র্ক প্রবাসীদের

Sonali News

বন্দরনগরী চট্টগ্রামের প্রাণকেন্দ্র সিআরবি এলাকার শতবর্ষী বিশাল গাছগুলো কেটে হাসপাতাল তৈরির ... বিস্তারিত

গাজি মার্কেট তরুণ প্রবাসী ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে নগদ অর্থ ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

গাজি মার্কেট তরুণ প্রবাসী ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে নগদ অর্থ ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

Sonali News

গাজি মার্কেট তরুণ প্রবাসী ঐক্য পরিষদের উদ্দোগে পবিত্র ইদূুল আযহা উপলক্ষে গরীব ও অসহায়দের মধ্যে ... বিস্তারিত

সন্দ্বীপে লকডাউন পরিস্থিতিতে প্রশাসনের কড়াকড়ি, আবারো ভ্যাক্সিন প্রদান কার্যক্রম শুরু

সন্দ্বীপে লকডাউন পরিস্থিতিতে প্রশাসনের কড়াকড়ি, আবারো ভ্যাক্সিন প্রদান কার্যক্রম শুরু

Sonali News

ইলিয়াস কামাল বাবুদেশের সার্বিক করোনা পরিস্থিতির চরম অবনতিতে ১ জুলাই থেকে পরিস্থিতির দ্রুত ... বিস্তারিত