এম মনজুর আলম : আমার দেখা ক্ষণজন্মা পুরুষ

Sonali News    ১০:১৬ পিএম, ২০২০-০৭-১৯    73


এম মনজুর আলম : আমার দেখা ক্ষণজন্মা পুরুষ

এম মনজুর আলম : আমার দেখা ক্ষণজন্মা পুরুষ

মোহাম্মদ আলমগীর ::

আলহাজ্ব এম মনজুর আলম। একজন জীবন্ত কিংবদন্তীর নাম। তিনি শিক্ষার আলোকবর্তিকা, মানব প্রেম ও মানব সেবায় অসাম্প্রদায়িক চেতনাদীপ্ত ধর্মভীরু একজন সাদামনের মানুষ।

২০১১ সালে উত্তর কাট্টলী আলহাজ্ব মোস্তফা-হাকিম কলেজে অধ্যক্ষ হিসাবে যোগদান করার পর থেকে অদ্যাবধি তাঁর পরম সাহচর্যে আমি ধন্য হয়েছি। সেবা ও জনকল্যাণে এমন উৎসর্গিত ব্যক্তিত্ব আমার কাছে অদ্বিতীয় ও বিরল। তাঁর সাথে আমার পথচলা দীর্ঘ নয়- মাত্র দশ বছর।

এই সময়ে কলেজের বিভিন্ন কাজে তাঁর সান্নিধ্যে যাওয়ার, তাঁকে কাছ থেকে উপলদ্ধি করার সুযোগ লাভ করি। তাঁর জীবনের হৃদয়স্পর্শী গল্প শুনে আমি অভিভূত হই, আমি অবাক হই- কিভাবে একজন মানুষ বিন্দু বিন্দু জল থেকে মহাসাগরে পরিণত হয়েছেন।

আমার দেখা এই ক্ষণজন্মা ব্যক্তিত্ব আলহাজ্ব এম মনজুর আলম ১৯৫৩ সালের ২ জুলাই এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জম্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম আলহাজ্ব  আব্দুল হাকিম মাইজভান্ডারী (র:) ও মাতার নাম আলহাজ্ব মোস্তফা খাতুন। পিতা-মাতা দুজনই পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে নিজ-নিজ মাজারে বেহেস্তের সুশীতল ছায়ায় শুয়ে আছেন।

তাঁর বাবা ছিলেন স্বাধীনতার পতাকাবাহী ঐতিহ্যবাহী সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ডের সভাপতি এবং দরবারে মুসাবিয়ার একনিষ্ঠ ভক্ত ও আধ্যাত্বিক পুরুষ।

এই কর্মবীর ব্যক্তিত্ব অক্লান্ত পরিশ্রম ও নিরলস প্রচেষ্টার মাধ্যমে বড় ভাই আলহাজ্ব এম. এ তাহেরের সংগে যৌথ প্রয়াসে বহু শিল্প কল-কারখানা গড়ে তুলে নিজেকে দেশের একজন শীর্ষ স্থানীয় শিল্প উদ্যোক্তা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হন এবং দেশের অর্থনীতিতে অসামান্য অবদান রেখে চলেছেন।

এই নিরহংকার, উদার, স্নিগ্ধ পরিশীলিত ব্যক্তিত্ব আলহাজ্ব এম মনজুর আলম বিত্তের সাথে চিত্তের সমন্বয় ঘটিয়ে গড়ে তোলেন সামাজিক, ধর্মীয়, শিক্ষা ও মানব সেবার এক বিশাল কর্মভূবন।

শিক্ষার আলোয় আলোকিত মানুষ গড়ার লক্ষ্যে ১৯৯৪ সালের ২৭শে মে, মা-বাবার নামে উৎসর্গিত আলহাজ¦ মোস্তফা-হাকিম কলেজ গড়ে তোলেন। বর্তমানে এই কলেজ ৭টি বিষয়ে অনার্স ও ২টি বিষয়ে মাস্টার্স কোর্স সহ দেশের অন্যতম মহাবিদ্যাপীঠ হিসেবে সাফল্যের ভিত রচনা করেছে।

তাছাড়া সেবা ও জনকল্যাণে কর্মপরিধি বিস্তৃতির জন্য একই বছর আলহাজ¦ মোস্তফা-হাকিম ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশন গড়ে তোলেন। আমি যোগদান করার পূর্বে ফাউন্ডেশন কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত ও পরিচালিত প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ছিল ২৮টি এবং বর্তমানে বিশাল কর্মযজ্ঞের মাধ্যমে এই প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৬৫ তে উন্নীত হয়।

তন্মধ্যে ২টি কলেজ, ৪টি উচ্চ বিদ্যালয়, ৫টি প্রাথমিক ও কেজি স্কুল, ২টি মাদ্রাসা সবিশেষ উল্লেখ যোগ্য। তিনি শুধু প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করে এই সেবাকে সীমাবদ্ধ রাখেন নাই।

তিনি তাঁর দানের হাত প্রসারিত করে রমজানে গরীব দুস্থদের সেহরী ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ, ঈদ ও পূজা-পার্বনে দরিদ্র ও বিধবাদের মাঝে বস্ত্র সামগ্রী বিতরণ, বছরের প্রারম্ভে গরীব ও মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে নতুন পুস্তক বিতরণ, অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় তাৎক্ষণিক খাদ্য-বস্ত্র, ঔষধ, আর্থিক সাহায্য ও বাসস্থান সামগ্রী প্রদান, গরীব শিক্ষার্থী, বিয়ে-শাদী, অসুখে-বিসুখে, দাফনে-কাফনে আর্থিক সহযোগিতা প্রদান, মসজিদ-মাদ্রাসা, মন্দির, স্কুল-কলেজে অকাতরে দান, উষ্ণতায় ও দুষ্প্রাপ্যতায় বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ, প্রবীন মহিলাদের  আবাসন ব্যবস্থা ও দুস্থ বয়স্ক চিকিৎসা ভাতা প্রদান ইত্যাদি একক ব্যাক্তিগত বা আলহাজ্ব মোস্তফা- হাকিম ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের নিত্ত-নৈমিত্তিক কাজের অংশ।

এই সেবার পরিধি বৃদ্ধির লক্ষ্যে তাঁদের সন্তানদের হাতে সেবামুলক কর্মকান্ড সচল রাখার দায়িত্ব প্রদান করেছেন।

তাই বর্তমানে হোসনে আরা-মঞ্জু ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্ট প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে শিক্ষা বিস্তারে, জনকল্যান মুলক কাজে, গরীব অসহায়দের অবস্থার উন্নয়নে, সমাজ উন্নয়ন মুলক কাজে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছেন। রাষ্ট্রীয় পর্যায়েও আলহাজ¦ এম মনজুর আলমের ভূমিকা ও অবদান অনস্বীকার্য।

তিনি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সফল মেয়র হিসেবে মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন। চট্টগ্রাম মহানগরের মানব সেবা, জনকল্যান ও সার্বিক উন্নয়নে নিরলস প্রচেষ্টায় ও পরিশ্রমে মেধা ও প্রজ্ঞায় নিপুন হস্তে প্রশাসন পরিচালনা ও জন সম্পর্ক স্থাপনের মাধ্যমে এক নতুন যুগের সৃষ্টি করেছেন।

তাঁর এই সাফল্য গাঁথা ইতিহাস শুধু চট্টগ্রামে সীমাবদ্ধ থাকেনি। এর আলোকদ্যুতি সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। তাঁর ভ্রাতুষ্পুত্র আলহাজ্ব দিদারুল আলম পর-পর দু’বার জাতীয় সাংসদ হিসেবে জনগণের ভালোবাসায় সিক্ত তিনি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে ধারণ করেন ও লালন করেন।

তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি অবিচল আস্থা রেখে দেশ গড়ার কাজে নিজেকে আত্মনিয়োগ করেন। বঙ্গবন্ধুর সহধর্মীনি শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের প্রতি প্রগাঢ় ভালোবাসা ও শ্রদ্ধায় গড়ে তোলেন শেখ ফজিলাতুন্নেছা মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন।

প্রতি বছর বাঙালী জাতির মর্মস্তুদ দিন ১৫ই আগস্টে জাতির পিতা ও তাঁর পরিবার বর্গের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে অসহায়, গরীব-দুস্থ- এতিমদের মাঝে খাবার বিতরণ, কাপড় বিতরণ ও গরীব ছেলে-মেয়েদের বিবাহের ব্যবস্থা করে থাকেন। তাছাড়া প্রতিটি জাতীয় অনুষ্ঠানে তাঁর ব্যাতিক্রমধর্মী উদ্যোগ সকল মহলে প্রশংসনীয়। অসাম্প্রদায়িক চেতনার এই ব্যক্তিত্বের সকল ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ অপরিসীম।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের যে কোন ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠানে তিনি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন। সম্প্রতি ১০ নং ওয়ার্ডে মহাশ্মশানে মৃতদেহ নেয়ার পথটি বৃষ্টি হলে কর্দমাক্ত পথে পরিনত হয় বলে, মানুষের দুর্ভোগের কথা ভেবে তিনি ব্যাক্তিগত অর্থায়নে রাস্তাটি সংস্কার করে দেন।

শুধু তাই নয় বৌদ্ধ ও খ্রীষ্টান ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় বড় অনুষ্ঠানে নিজ বাস ভবনে ভিক্ষু ও ফাদার’দের আমন্ত্রণ করে তাদের সম্মাননা প্রদান ও নৈশভোজে আপ্যায়ন করে অন্য ধর্মের প্রতি উদারতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন।

নিরহংকার-নির্মোহ এই ব্যক্তিত্ব অসহায়, অন্ধ, বধির, বাকশক্তিহীন, পথশিশুদের প্রতি তাঁর ভালোবাসা, সাহায্য করা বর্ণনাতীত, সমাজসেবা অধিদপ্তরের অধীনে পরিচালিত প্রতিষ্ঠানে বাকশক্তিহীন এতিম শিশুদের সাথে তিনি জম্মদিনের শুভেচ্ছা ও ভালোবাসায় সিক্ত হতে কুন্ঠাবোধ করেন না।

তিনি তাদেরকে নিয়ে কেক কাটেন, স্বহস্তে তাদের খাওয়ান, তাদের জড়িয়ে ধরেন, তারাও তাঁকে আলিঙ্গণ করে। ঈদুল ফিতরে তাদেরকে বাসায় দাওয়াত করে খাওয়ান, ঈদের বকশিশ দেন। এই সময় অসহায় ছেলেগুলো আনন্দে মেতে উঠে। কোরবানীর ঈদেও তিনি তাদের জন্য লক্ষাধিক টাকা ব্যয়ে গরু উপহার দেন।

করোনা মহাসংকটে মানুষ যখন দিশেহারা, চারিদেকে মৃত্যুর মিছিল, বিত্তবানরা আইসোলেশানে, ঠিক এমনি পরিস্থিতিতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সকল প্রতিকুলতা পরিহার করে সাধারন অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন আলহাজ্ব এম মনজুর আলম। সিটি কর্পোরেশনের সকল ওয়ার্ডে সাধারন মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ, বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহের ব্যবস্থা করে অসহায় মানুষের ত্রানকর্তা হিসেবে তিনি আবির্ভূত হন।  

এই মহান ব্যাক্তিত্বের বিশাল কর্মযজ্ঞকে নির্দিষ্ট ছকে মূল্যায়নের ভাষা আমার জানা নেই। যতদিন বঙ্গোপসাগরের জলরাশি প্রবাহিত থাকবে ততদিন এই কীর্তিমান ব্যাক্তিত্বের কর্মে ও দানে তিনি মানুষের হৃদয়ে সমুজ্জ্বল থাকবেন।

পরম করুনাময় আল্লাহর দরবারে তাঁর সুসাস্থ্য ও দীর্ঘায়ূ কামনা করছি।

লেখক- মোহাম্মদ আলমগীর, অধ্যক্ষ-উত্তর কাট্টলী আলহাজ্ব মোস্তফা-হাকিম কলেজ উত্তর কাট্টলী, আকবর শাহ্, চট্টগ্রাম ।



রিটেলেড নিউজ

স্বাধীনতার ৫০ বছর পু‌র্তিতে গণতন্ত্র, ভোটা‌ধিকার রক্ষার শপথ নি‌তে হ‌বে- ডা. শাহাদাত হোসেন

স্বাধীনতার ৫০ বছর পু‌র্তিতে গণতন্ত্র, ভোটা‌ধিকার রক্ষার শপথ নি‌তে হ‌বে- ডা. শাহাদাত হোসেন

Sonali News

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির আহবায়ক ও চসিক নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন ... বিস্তারিত

৯ বছর পর নতুন গান নিয়ে দর্শক শ্রোতাদের মাঝে ফিরে আসছেন পান্না চেমন

৯ বছর পর নতুন গান নিয়ে দর্শক শ্রোতাদের মাঝে ফিরে আসছেন পান্না চেমন

Sonali News

চট্টগ্রামের জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী পান্না চেমন দীর্ঘ ৯ বছর পর আবারো নতুন গান নিয়ে দর্শক শ্রোতাদের ... বিস্তারিত

সন্দ্বীপ স্টুডেন্টস্ এসোসিয়েশন চট্টগ্রাম কলেজের ৭ম বর্ষপূর্তি উদযাপিত

সন্দ্বীপ স্টুডেন্টস্ এসোসিয়েশন চট্টগ্রাম কলেজের ৭ম বর্ষপূর্তি উদযাপিত

Sonali News

ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ চট্টগ্রাম কলেজের সন্দ্বীপ ভিত্তিক ছাত্র সংগঠন 'সন্দ্বীপ স্টুডেন্টস্ ... বিস্তারিত

রাসেল হোসেন যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মনোনীত হওয়ায় সোনালী মিডিয়ার অভিনন্দন

রাসেল হোসেন যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মনোনীত হওয়ায় সোনালী মিডিয়ার অভিনন্দন

Sonali News

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সদ্য ঘোষিত কেন্দ্রীয় কমিটিতে সদস্য হিসেবে মনোনীত হয়েছেন ছাত্রলীগের ... বিস্তারিত

আনন্দ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হলো জাগ্রত ব্যবসায়ী ও জনতা চট্টগ্রাম জেলা কমিটির অভিষেক

আনন্দ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হলো জাগ্রত ব্যবসায়ী ও জনতা চট্টগ্রাম জেলা কমিটির অভিষেক

Sonali News

গত ১৩ ই নভেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ শুক্রবার জাগ্রত ব্যবসায়ী ও জনতা চট্টগ্রাম জেলা কমিটির অভিষেক ... বিস্তারিত

চট্টগ্রামে এসএসসি ৯৭ ও এইচএসসি ৯৯ ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন'র ফ্যামিলি ডে

চট্টগ্রামে এসএসসি ৯৭ ও এইচএসসি ৯৯ ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন'র ফ্যামিলি ডে

Sonali News

অসহায় বন্ধুদের পাশে আমরা এ স্লোগানকে প্রতিপাদ্য করে সারাদেশের এসএসসি-৯৭ এইচ.এসসি-৯৯ বন্ধুদের ... বিস্তারিত

সর্বশেষ

সন্দ্বীপে বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মাষ্টার আবুল কাশেমের সন্তান ফজলুল করিমের পক্ষ থেকে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ

সন্দ্বীপে বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মাষ্টার আবুল কাশেমের সন্তান ফজলুল করিমের পক্ষ থেকে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ

Sonali News

চট্টগ্রাম জেলার সন্দ্বীপ উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মাষ্টার আবুল কাশেম এর সন্তান ফজলুল ... বিস্তারিত

মানারাত বিজনেসক্লাবের আয়োজনে সোশিও থ্রিসিক্সটি ডিগ্রি

মানারাত বিজনেসক্লাবের আয়োজনে সোশিও থ্রিসিক্সটি ডিগ্রি

Sonali News

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং নিয়ে মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বিজনেসক্লাব (এমআইইউবিসি) ... বিস্তারিত

জন্মদাত্রী না হয়েই মা!

জন্মদাত্রী না হয়েই মা!

Sonali News

এস এম জাকিরুল আলম মেহেদী মাতৃত্ব মানে মায়ের পুর্ণতা!তার মানে যিনি গর্ভে ধারণ করেছেন তিনি মা!যারা ... বিস্তারিত

সোনালী মিডিয়া ফোরাম, চট্টগ্রাম'র কম্বল বিতরণ

সোনালী মিডিয়া ফোরাম, চট্টগ্রাম'র কম্বল বিতরণ

Sonali News

সোনালী মিডিয়া ফোরাম, চট্টগ্রাম'র উদ্যোগে ফোরাম সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী শাহীন চৌধুরীর আর্থিক ... বিস্তারিত