আজ বুধবার, ১৫ আগষ্ট ২০১৮ ইং, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



নির্বাচনী ইসতিহার ও ভবিষ্যৎ চিন্তা চেতনা জনগনের সামনে তুলে ধরেছেন নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান শাহাদাত চৌধুরী

Published on 05 April 2016 | 6: 25 pm

প্রিয় আমানউল্যা বাসী
আস্সালামু আলাইকুম/আদাব

আমি শাহাদাত চৌধুরী, পিতাঃ মরহুম ফারুক আহম্মদ চৌধুরী (সুজন চৌধুরী) আমানউল্যা চৌধুরী বাড়ী। আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ১৯ নং আমানউল্যাহ ইউনিয়ন হইতে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনিত চেয়ারম্যান পদপার্থী হিসেবে আপনাদের সামনে উপস্থিত হলাম। আমার নির্বাচনী প্রতীক নৌকা।

প্রিয় এলাকাবাসী অতীতে আপনারা আমাকে ভালোবাসা স্নেহ ও সমর্থন দিয়ে বারবার চেয়ারম্যান নির্বাচিত করার চেষ্টা করেছিলেন। ভাগ্যের নির্মম পরিহাস আমি আপনাদের সেবা করা থেকে বঞ্চিত হয়েছি। তারপর ও আমি এলাকার মানুষের সুখে-দুঃখে পাশে ছিলাম, পাশে আছি, পাশে থাকবো। কখনো নিজের ভাগ্যের পরিবর্তনের জন্য সুযোগ থাকা সত্বেও এলাকাবাসীদের ছেড়ে প্রবাসে পাড়ি দিয়নি। আজ অতীতের সব স্মৃতি ভূলে প্রতিজ্ঞা করেছি আপনাদের ভালোবাসা ও সমর্থন দিয়ে আমাকে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করায় আমার স্বপ্নের আমানউল্যা ইউনিয়নকে একটা মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলবো এটা আমার দীর্ঘ দিনের লালিত স্বপ্ন, এটা আমার পুঞ্জিবুত সাধনা, এটা আমার বিশ্বাস। নিম্মে আমার নির্বাচনী ইসতিহার ও চিন্তা চেতনা আপনাদের সামনে তুলে ধরলাম।

ইসতিহার
নাগরিক সুবিধা সমূহ
===================

১. ইউনিয়ন পরিষদকে দলীয় প্রভাব মুক্ত রেখে সর্বজনীন ইউনিয়ন পরিষদ হিসেবে গঠন করা।

২. এলাকার শিক্ষিত, সম্মানিত ব্যক্তিবর্গের সম্বনয়ে উপদেষ্টা কমিটি গঠন এবং তাদের পরামর্শ ক্রমে ইউনিয়ন পরিষদের সার্বিক কর্কান্ড পরিচালিত করা।

৩. সামাজিক বিরোধ নিষ্পত্তিতে বিচার ব্যবস্থায় সমাজকে অর্ন্তভূক্ত করা হবে প্রয়োজন বোধে তাৎক্ষণিক আমানত গ্রহণ করা হবে।

৪. দলমত নির্বিশেষে ন্যায় বিচার ভিত্তিক সমাজ ব্যবস্থা গড়ে তোলা হবে।

৫. জন গুরুত্ব পূর্ণউন্নয়ন প্রকল্পে স্থানীয় জনসাধারনকে সমপৃক্ত করা হবে।

৬. কোন রকম ভোগান্তী ছাড়া যথা সময়ে বিনা মূল্যে নাগরিক সনদ (চেয়ারম্যান সার্টিফিকেট) প্রদান করা হবে।

৭. ইউনিয়ন পরিষদের বন্ধথাকা তথ্য ও সেবা কেন্দ্র পুনরায় চালু করা হইবে।

৮. ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগের স্বার্বজনীন পাঠাগার ও দৈনিক প্রত্রিকা পাঠ করার ব্যবস্থা করা হবে।

৯. পেশী শক্তি নির্ভর গোষ্টি সস্ত্রাসকে কঠোর হাতে দমন করে নাগরিকদের জান মালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে।

১০. সমাজিক অবক্ষয় ও মাদক মুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠা করা হবে।

১১. টি.আর বরাদ্দের মাধ্যেমে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান সমূহের উন্নয়ন কর্মকান্ডের সহায়তা করা হবে।

১২. ইউনিয়ন পরিষদের মাসিক কর্মকান্ডের বিবরণী জন সাধারণের অবগতির জন্য প্রদর্শনের ব্যবস্থা করা হবে।

১৩. আমানউল্যা ইউনিয়নকে মত ভাগ সেনিটেশন ব্যবস্থা অওতায় আনা হবে।

১৪. নিরক্ষর মুক্ত আমানউল্যা ইউনিয়ন গড়ে তোলা হবে।

১৫. সরকারি নীতি মালা অনুসরন করে ইউনিয়ন পরিষদের সেবা সমূহ জনগণের জন্য বৈষম্যহীন ভাবে প্রদান করা হবে।

১৬. ওয়ার্ড ভিত্তিক ক্রৈ-মাসিক সভা করে সমস্যা চিহ্নিত করণ পূর্বক সমাধান কল্পে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

১৭. পিতৃহীন, গরীব, অসচ্ছল, ্প্রতিবন্ধী ছাত্র-ছাত্রীদের লেখা পড়ার সহায়তার জন্য আর্থিক অনুদান প্রদান করা হবে।

১৮. এলাকার শিক্ষিত, বেকার যুবকদের কম্পিউটার সহ অন্যান্য প্রশিক্ষণ প্রদান করে সাবলম্বী করা হবে।

১৯. ইউনিয়নের পশ্চিম অঞ্চলে জোয়াড়ের পানিতে জন দুর্ভোগ নিরসনে অগ্রাধিকারের ভিক্তিতে যথাযথ কৃর্তপক্ষের মাধ্যমে প্রকল্প গ্রহন করা হবে।

“আমিন” আল্লাহ আমাদের সহায় হউক।

বিনীত

শাহাদাত চৌধুরী

চেয়ারম্যান

১৯ নং আমানউল্যা ইউনিয়ন


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন