আজ বুধবার, ১৫ আগষ্ট ২০১৮ ইং, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



গণমাধ্যম কর্মী হিসেবে আজ প্রথম নিজ আঙ্গিনায় নিবন্ধিত হলাম –

Published on 29 February 2016 | 6: 56 pm

কাজী ইফতেখারুল আলম তারেক

সন্দ্বীপ ডেভেলপমেন্ট ফোরাম এর ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে ঢাকায় সন্দ্বীপের যে ক’জন গণমাধ্যম কর্মী জাতীয় পর্যায়ে কাজ করছেন তাদের সাথে -সংগঠনটির সেক্রেটারি নুরুল আক্তার এর মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। আগামী ৪ মার্চ ,ঢাকায় হতে যাচ্ছে ঢাকাস্থ সন্দ্বীপ বাসীদের সব থেকে বড় আয়োজন। সংবর্ধিত হচ্ছেন ১৫ গুণীজন।

যারা ছিলেন আজকের আয়োজনে -নুরুল আক্তার, কানাই চক্রবর্তী, মুজিব মাসুদ, ইকবাল করিম নিশান, মোস্তফা কাজল, মোশাররফ হোসাইন, ফিরোজ চাষী, সওকত আলী, মহিউদ্দিন শিবলী, সুমি, রাবেয়া ও আমি। লেখালিখি করি অনেক দিন ধরে। টুকটাক লিখতে যেয়ে পেপার -পত্রিকার সাথে জানাশুনা হয়ে গেল। তা প্রায় ১ দশকের মত। আমি খুব অল্প বয়সেই সাংবাদিকতার হাতে খড়ি নিয়েছি। মাঝে মধ্যে টুকটাক লিখতাম, তার পর অনেক বেশি, এই ভাবে শুরু।

পেশা হিসেবে সাংবাদিকতা না করলেও আমি পেশাদারিত্বের পথে। নিজেকে কোনো দিন গণ মাধ্যম কর্মী হিসেবে পরিচয় দেই না।তবুও এই পেশার প্রতি একটা দুর্বলতা অনুভব করি। জানি না সামনের দিন কি হয়? সন্দ্বীপের সংগঠন গুলির সাথে আমার সম্পর্ক আত্মার। তাই তো যে কোনো আয়োজনে সব থেকে কম বয়সী ছেলে আমি। আমার সাথে সন্দ্বীপের মানুষের যে সম্পর্ক তাতে বেশির ভাগ সময় আমি হিংসার বসবর্তী হতে হয়। তবুও এসব পায়ে ঠেলে কাজ করি।

সন্দ্বীপ ডেভেলপমেন্ট ফোরাম এর ২৫ বছর পূর্তির আয়োজন কে কেন্দ্র করে এবার ও ডাক পেলাম, তবে একটু ভিন্ন কদরে, ভিন্ন আমেজে। সেটা হচ্ছে গণমাধ্যম কর্মী হিসেবে। ভাবতে ভালোই লাগছে। আজকের পরিসরে যাদের সাথে বসলাম তাদের মাঝে অনেকেই আছেন যারা আমার জন্মের আগ থেকেই সংবাদিকতা করছেন।আজকের দিনে সন্দ্বীপের যে কজন ছেলে টেলিভিশন, পত্রিকায় কাজ করছেন তাদের সাথে বরাবরই দারুন সম্পর্ক। সব থেকে কম বয়সী তরুণ আমি। ঢাকার জীবন শুরু থেকেই আমি সন্দ্বীপের যেকোনো অনুষ্ঠান, সভা, সেমিনার, আন্দোলন, মানব বন্ধন, কিংবা যেকোন উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় নিজেকে সমান ভাবে নিয়োজিত রেখেছি। এই জন্যে অনেকের বিরাগ ভাজন হতে হয়েছে আমাকে। আসলেই কি করব? সন্দ্বীপের মানুষ দেখলে, সন্দ্বীপের যেকোনো আনন্দ আমাকে আন্দোলিত করে তাই আমার হৃদয়ে সন্দ্বীপের জন্যে অন্য রকম এক দরদ কাজ করে। এটা যেকোনো সন্দ্বীপের মানুষের এই আন্তরিকতা রয়েছে। হয়তো কারো বেশি, কারো কম। আমরা দুধের সাধ গোলে মিটায় আর কি? যেহেতু সন্দ্বীপ থেকে দুরে আছি তাই সন্দ্বীপের যেকোনো কর্ম কান্ড এ নিজেকে নিয়োজিত রেখে তৃপ্তি পাই। এটা এক ধরনের ভালবাসা, এক ধরনের পাওয়া। যারা সব কিছুতেই লাভ খোজেন তাদের সাথে আমার অনেক মত পাথক্য রয়েছে। আমি একটু অন্য ভাবে চলতে চাই, সবার সাথে মিলতে হবে চিন্তায় সেটা আমি বিশ্বাস করি না। আমার ভালো লাগার সাথে অন্যের দুরুত্ব থাকবে এটাই স্বাভাবিক।

12805648_1064401273619323_1960499757274757604_n

যাহোক, গণমাধ্যম কর্মী দের সাথে এক অন্য রকম কিছু মুহূর্ত কেটেছে। অনেক বিষয় আমাকে আন্দোলিত করেছে। মনে থাকার মতো কিছু সময়।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন