আজ শনিবার, ২১ জুলাই ২০১৮ ইং, ০৬ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



ধর্ম ব্যবসায়ীদের সাথে ভুল পথে ইমামদের পা না বাড়ানোর আহবান

Published on 18 April 2018 | 2: 49 pm

:: সোনালী নিউজ প্রতিবেদক ::
ইসলামিক ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের উদ্যোগে  ১৮ এপ্রিল বুধবার সকাল ১১ টায় প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ইমামদের জেলা ইমাম সম্মেলন ২০১৭-১৮ আন্দরকিল্লাহ ইসলামিক ফাউন্ডেশন মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়।
সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন ইসলামিক ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক আবুল হায়াত মুহাম্মদ তারেক।  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম জমিয়তুল ফালাহ্ জাতীয় মসজিদের খতিব বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মাওলানা ক্বারী সৈয়দ আবু তালেব মুহাম্মদ আলাউদ্দিন।
প্রধান অতিথি বলেন-ধর্ম ব্যবসায়ীদের সাথে ভুল পথে পা না বাড়িয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রতির বন্ধনে সকলকে আবদ্ধ থাকতে হবে।  ইমামগণ যেহেতু সমাজের ধর্মীয় নেতৃত্বের মর্যাদায় অধিষ্ঠিত নায়েবে রাসুল ও আল্লাহর খুব নিকটতম বান্দা, সুতরাং জাতি গঠনে তারা অনন্য ভূমিকা পালন করতে পারেন।  ইমামগণ শুধুমাত্র ইমামতির দায়িত্ব পালন করলে চলবে না তাদেরকে ইমামতির পাশা-পাশি ঐক্যবদ্ধ ভাবে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, যৌতুক, বাল্য বিবাহ্ সহ সমাজ ও রাষ্ট্র বিরোধী কর্মকান্ড প্রতিহত করতে হবে।
সভাপতির বক্তব্যে ইসলামিক ফাউন্ডেশন চট্টগ্রামের বিভাগীয় পরিচালক আবুল হায়াত মুহাম্মদ তারেক বলেন, দেশের  সর্বস্থরের আলেম ওলামা ও মসজিদের ইমামদের নিরাপদ ঠিকানা ইসলামিক ফাউন্ডেশন। আলেমদেরকে আত্ম কর্মসংস্থান মূলক প্রশিক্ষণের মাধ্যমে স্বনির্ভর করার জন্য ইসলামিক ফাউন্ডেশন নানামুখী কর্মসূচী গ্রহণ করছে।  তিনি প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত ইমামদেরকে সাবলম্বি হয়ে দেশের উন্নয়ন কর্মকান্ডে সর্বাত্মকভাবে নিজেদেরকে জড়িত করার উদাত্ত আহবান জানান।
ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সহকারী পরিচালক মীর মুহাম্মদ নেয়ামত উল্লাহর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইসলামিক ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক ফাহমিদা বেগম।  আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইমাম প্রশিক্ষণ একাডেমীর উপ-পরিচালক মুহাম্মদ মুনিরুজ্জামান।
উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম বিভাগের আওতাধীন জেলা সমূহ থেকে অংশগ্রহণকারী প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ইমামদের মধ্য থেকে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা এবং প্রশিক্ষনোত্তর-কর্মকান্ডের উপর ভিত্তি করে ০৩ (তিন) জনকে শ্রেষ্ঠ ইমাম হিসেবে নির্বাচন করা হয়। জেলা পর্যায়ে ০৩ জন শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনকারী ইমামকে বিভাগীয় পর্যায়ে অংশনের জন্য প্রশিক্ষনোত্তর-কর্মকান্ডের উপর আরও ভালো ভাবে প্রস্তুতি নেওয়ার আহবান জানান। সম্মেলন শেষে দোয়াও মুনাজাত পরিচালনার মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন