আজ রবিবার, ১৯ আগষ্ট ২০১৮ ইং, ০৪ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



হাড়ের সুরক্ষায় প্রয়োজন প্রোটিনযুক্ত খাবার

Published on 17 March 2018 | 11: 41 am

মজবুত হাড়ের জন্য ক্যালসিয়াম অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ । অন্যদিকে প্রোটিন ক্যালসিয়ামের পরিমান বাড়াতে সাহায্য করে। একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের প্রতিদিন কমপক্ষে ৭০০ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম প্রয়োজন। এই চাহিদা পূরণে প্রোটিনযুক্ত খাবার খাওয়া দরকার।

বিশেষজ্ঞদের মতে, একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের প্রতিদিন ৫৪ থেকে ৬৮ গ্রাম প্রোটিন প্রয়োজন। কিছু প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার আছে যা হাড় মজবুত রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

চামড়া ছাড়া মুরগীর বুকের মাংসে প্রচুর পরিমানে প্রোটিন থাকে। এছাড়া টুনার মতো সামুদ্রিক মাছেও অনেক প্রোটিন পাওয়া যায়। চর্বি ছাড়া গরুর মাংসও প্রোটিনের ভালো উৎস। হাড়ের সুরক্ষায় এসব প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার খেতে পারেন।

একটি ডিমে ৭ গ্রাম প্রোটিন থাকে। যারা হাড়ের সুরক্ষা বজায় রাখতে চান তাদের প্রতিদিন ডিম খাওয়া উচিত।

দুধে প্রোটিন এবং দুধ দুইটিরই সংমিশ্রণ থাকে। এক গ্লাস দুধে ৮ গ্রাম প্রোটিন পাওয়া যায়। একারণে হাড়ের গঠনে দুধ হচ্ছে সবচেয়ে উপকারী খাবার। এছাড়া অন্যান্য দুধ জাতীয় খাবারও মজবুত হাড় তৈরির জন্য উপকারী।

সকালের নাস্তায় প্রোটিন থাকা জরুরি। সেক্ষেত্রে ওট খেতে পারেন। এটা প্রোটিনের দারুন উৎস। এছাড়া এতে ম্যাগশিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ এবং ভিটামিন বি ৬ ও রয়েছে।

এক কাপ ব্রকলিতে তিন গ্রাম প্রোটিন থাকে। অন্যান্য শাকসবজির চেয়ে এতে বেশি পরিমানে প্রোটিন পাওয়া যায়। এছাড়া এটি ভিটামিন সি, কে , পটাশিয়াম এবং ফাইবারেরও দারুন উৎস। চীনাবাদামেও প্রচুর পরিমানে প্রোটিন পাওয়া যায়।

হাড়ের সুরক্ষায় ক্যালসিয়াম এবং প্রোটিন দুইটিই সঠিক পরিমানে  দরকার। যদি শরীরের চাহিদার তুলনায় প্রোটিন বেশি হয়ে যায় তাহলে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি তৈরি হবে। একারণে সমন্বয় বজায় রেখে দুইটিই খেতে হবে।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন