আজ রবিবার, ১৯ আগষ্ট ২০১৮ ইং, ০৪ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



অবশেষে পুলিশের হাতে ধরাশায়ী সন্দ্বীপের শীর্ষ সন্ত্রাসী মিশু

Published on 31 January 2018 | 6: 31 am

:: মহি উদ্দিন টিপু ::

অবশেষে সন্দ্বীপ থানা পুলিশের হাতে ধরাশায়ী হল সন্দ্বীপ তথা চট্রগ্রামের শীর্ষ সন্ত্রাসী নুর ইলাহী মিশু। সন্দ্বীপ সর্বস্তরের মানুষের আতঙ্কের নাম মিশু। পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা, বিপিএম, পিপিএম এর নিদের্শনায় গত ৩০ জানুয়ারী ২০১৮ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সীতাকুণ্ড সার্কেল রেজাউর রহমান এর তত্ববধানে এবং অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম এর নেতৃত্বে সন্দ্বীপ থানা পুলিশ অভিযান পরিচালনা করে সন্দ্বীপ থানার তালিকাভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী এবং ডাবল মার্ডার, অস্ত্র ও চাঁদাবাজি সহ একাধিক মামলার আসামী মোঃ ফজলে এলাহী মিশু (২৭) কে গ্রেপ্তার করে । এসময় তার দুই সহযোগী রাশেদ (৩০) আবুল কালাম (২৮) কে মিশুর বসত ঘর হতে গ্রেফতার করা হয়।

আসামীর বাড়ীতে দুই দিনের অভিযানে ২ টি বন্দুক, ১১ রাউন্ড কার্তুজ, ৪ রাউন্ড রাইফেলের গুলি, ৩৫০ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট, ১৪টি RED FLARE ROCKET PARACHUTE সহ অস্ত্র তৈরীর বিপুল পরিমান সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।এই সংক্রান্তে পৃথক আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে।

উল্লেখ্য ২০১৫ সালের ২১ সেপ্টেম্বর হরিশপুর বাতেন মার্কেটে বাজার দখলকে কেন্দ্র করে কোরবানীর হাটে সন্ত্রাসীদের এলোপাথাড়ি গুলিতে নিহত হন জাহাংগীর ও কবির। এক পক্ষের নেতৃত্বে ছিল ধৃত ফজলে এলাহী মিশু। ঐ সংক্রান্ত হত্যা মামলার প্রধান আসামীও ছিল মিশু। সে সময় থানা পুলিশের অভিযানে মিশু ও তার বাবা গ্রেপ্তার হন এবং কিছু সময় জেলে থেকে জামিনে মুক্তি পান। মিশু নিজেকে থানা যুবলীগের নেতা পরিচয় দিয়ে থাকেন। অবশ্য উপজেলা যুবলীগ এর সত্যতা স্বিকার করেনি। স্থানীয় জনতার অভিযোগ মিশু এলাকায় ইয়াবা, মদ, গাঁজা ব্যবসা সহ নানা অপকর্মের সাথে জড়িত


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন