সন্দ্বীপে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করলো সন্দ্বীপ ফ্রেন্ডস সার্কেল এসোসিয়েশন

”উঠো জাগো এবং শ্রেয়কে বরণ করো’ এই মহামতি মন্ত্রে দীক্ষিত সন্দ্বীপ ফ্রেন্ডস সার্কেল এসোসিয়েশনের উদ্যেগে পূর্ব বেড়িবাধ সংলগ্ন এলাকায় শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্র বিতরণ করা হয়।

শুক্রবার, সকাল ১০টায় গুপ্তছড়া বেঁড়িবাধ থেকে কাছিয়াপাড়,বাউরিয়া,গাছুয়ার বিভিন্ন পয়েন্টে মোট ৬৩৫ জন শীতার্ত মানুষের মাঝে এই শীতবস্ত্র দেওয়া হয়।

সংগঠনের কলেজ শাখা পর্যায়ক্রমে এবি কলেজ,এম আর কলেজ,উত্তর সন্দ্বীপ কলেজ কমিটির শতাধিক তরুণের অংশগ্রহণের মাধ্যমে তৃণমূলের অসহায় সুবিধা বঞ্চিত মানুষদের নিজ হাতে কম্বল, সুয়েটার,শিশু নারীদের মাঝে তরুণরা এ কাপড় বিতরণ করা করে।

বাউরিয়া বেঁড়িবাধে বিধবা আম্বিয়া বেগম বলেন,” আমার ঘর বাড়ি নাই।আমি অত্যন্ত গরীব।এই শীতে আমাদের কেউ খবর নেই নাই।মানুষের মুখে শুনি সন্দ্বীপে বড় বড় মানুষেরা কম্বল দেয়।কই আমরা তো পাই না।আজকে এখানে কম্বল পাওয়ায় আমার অনেক উপকার হবে।”

সফিকুল আলম মানিক বলেন,”সংগঠনটি শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে প্রমাণ করেছে তারা সন্দ্বীপের মাটি ও মানুষের প্রতিনিধিত্ব করছে।মানুষের সুখ দুঃখ অনুভবের শক্তি এই তরুণের আছে।আমি গর্বিত এই সংগঠনটি প্রতিটির কর্মীর জন্যে।”

জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমি দীর্ঘদিন ধরে এই সংগঠনের সামাজিক-মানবিক কর্মকান্ড আমাকে দারুনভাবে উৎসাহিত করেছে।এখানে তারুণ্যের উচ্ছাস যেমন আছে,একই সাথে রয়েছে সন্দ্বীপের মানুষের প্রতি এই তরুণদের প্রবল কমিটমেন্ট। দিনদিন তারা সমাজকে বদলে দিচ্ছে।মাদক বিরুধী এই সংগঠনের প্রতিটি কাজ প্রশংসনীয়।সন্দ্বীপে জাতীয় পর্যায়ে নিয়ে যাচ্ছে তারা।এদের হাত ধরেই একটি ‘মানবিক সন্দ্বীপ’ গড়ে উঠবে এটা আমি বিশ্বাস করি।

সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা কাজী ইফতেখারুল আলম তারেক বলেন, এ শীতে সন্দ্বীপে বেঁড়িবাধ সংলগ্ন মানুষের দুদর্শা আমরা প্রত্যক্ষ করেছি,মানবিক দিক বিবেচনায় অসহায় মানুষের মানুষের দ্বারে দ্বারে আমাদের কর্মীদের পাঠিয়েছি। কর্মীদের প্রত্যক্ষ তথ্য উপাত্তের ভিত্তিতে শতাধিক তরুণদের অংশগ্রহণের মাধ্যমে ছয় শতাধিক মানুষের হাতে গরম কাপড় তুলে দিতে পেরে ভালো লাগছে। সংগঠনটি সব সময় মানবিক দিক বিবেচনায় মাথায় রেখে কাজ করবে।

সংগঠনটি সভাপতি আমির হোসেন রিশাদ বলেন,আজকের কর্মসূচি করতে গিয়ে তৃণমূলের পরিস্থিতি দেখে অবাক হয়েছি।অনেকে গরম কাপড় হাতে পেয়ে কেঁদে ফেলেছে।তাদের সাথে আলাপকালে জানতে পারি এসব অবহেলিত জনগোষ্ঠীর খবর কেউ রাখে না। আশা করছি এই মানবিক কর্মসূচির মাধ্যমে অন্যরাও এগিয়ে আসবে।

কর্মসূচিকে সফল ও সার্থক করতে যারা উপস্থিত ছিল- সংগঠনের সভাপতি আমির হোসেন রিশাদ,সহ-সভাপতি রিধোয়ানুল বারী,সমন্বয়ক সন্জয় মজুমদার, হাসান বিএল,শ্যামল,আরিফ
এবি সমন্বয়ক জাবেদ হোসেন, সভাপতি হায়দার গাজী, সেক্রেটারি সাজ্জাদ হোসেন সাজু,সহ-সভাপতি জিহাদ হোসেন,এস এম শরিফল ইসলাম সৌরভ,শাকিল হোসেন-(মিডিয়া),সোহাগ হোসেন,মোঃ ফাহিম,ফয়সাল,শাকিল,সজীব মজুমদার,ওরিন,শাকিল,রাজু।

এম আর সভাপতি সালাউদ্দিন জিসান,সেক্রেটারি সৌমিএ সৌরভ,সাংগঠনিক সম্পাদক এম এইচ রানা,রকি।
উত্তর সন্দ্বীপ কলেজ সভাপতি- পায়েল মাহমুদ,সেক্রেটারি-মো. জয়,
বাসুদেব,সজীব মজুমদার,সজীব,মোশাররফ,দিদার,মান্না,মিলাদসহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলো।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সফিকুল আলম মানিক,তাজাম্মল হোসেন,হুমায়ুন কবির,জাহাঙ্গীর আলম,টুটুল,রিপনসহ বেঁড়িবাধ এলাকার স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

কর্মসূচি শেষে সাংগঠনিক সভায় এই কর্মসূচির দাতা ও পৃষ্ঠপোষক- শাহনেওয়াজ মাহমুদ লাভলু,এ আর সোহেল,কাজী মনজুরুল আলম,রুমানা নাসরিন রুমু,আবদুল জলিল,সামাদ,রাসেল,মাহফুজুর রহমান দিলদার,জাহিদ,কবির,জহির উদ্দিন বাবর মহসিন, জাইফুর রহমান রিয়াদ,কাজী মিনহাজ উদ্দিন রুদবী,আফগানি বাবু,ফয়সাল বিডিআর কে ধন্যবাদ জানানো হয়।

 

minhaj rudvi

Leave a Reply

Top
%d bloggers like this:
Web Design BangladeshBangladesh Online Market