আজ মঙ্গলবার, ২১ আগষ্ট ২০১৮ ইং, ০৬ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



হাজারো সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত মসজিদের মুয়াজ্জিনরা

Published on 12 January 2018 | 5: 03 am

:: মাহামুদুল হাছান ::

বর্তমান যুগের সাথে তাল মিলিয়ে কে চলতে চাই সবার সাথে? সবার একটা ঘর সংসার রয়েছে। যে হারে মসজিদের মুয়াজ্জিনদের টাকা পয়সা দেওয়া বর্তমানে ৫ – ৬ হাজার টাকা দিয়ে আমি মনে করি কিছুই তো করতে পারেনা তারা। আপনারা কি বলেন?

বর্তমানে মুয়াজ্জিনরা দেশের ভিবিন্ন কিছু থেকে বঞ্চিত। তারা না পাই সরকারি কোন সুযোগ সুবিধা না পাই ভিবিন্ন মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠান থেকে সুযোগ সুবিধা। তাহলে কিভাবে চলে তাদের সংসার একটাবারও কি ভেবে দেখেছেন কি আপনারা?

আমাদের নবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ) বলেছেন তোমরা আলেম হও। যদি তা না হতে পারো তাহলে তোমার ছেলেকে আলেম বানাও। যদি তাও না করতে পারো তাহলে তোমার নাতীদের আলেম বানাও। যদি তাও না করতে পারো তাহলে তোমাদের গোষ্ঠীর মধ্যে কাউকে আলেম বানাও। তাহলে এটা থেকে বুঝে নিন আমাদের নবী আলেমদের স্থান কতটুকু দিয়েছেন। কিন্তু বর্তমানে আমরা আলেমদের কোন দাম দেয় না সম্মান দিয়ে কথা বলি না। একবার ভেবে দেখেন আপনি যখন এই দুনিয়াতে এসেছেন তখন আপনার আলেমকে প্রয়োজন হয়েছে আবার যখন চলে যাবেন তখনও আপনার আলেমকে প্রয়োজন পড়ে। তাহলে কেন এত অহংকার আপনার?

আরে অহংকারতো থাকার কথা আলেমদের কিন্তু তারা কোন অহংকার করে না মুখ বুঝে সব সহ্য করে যাচ্ছে। কারন তাদের একটা অপরাধ তারা আলেম বলে। আপনারা অনেকে যারা ২০ – ৩০ হাজার টাকা বেতনের চাকরি করেন অথচ তাদের পরিবারে দেখা যায় তার পরেও টান থাকে। তাহলে একটা আলেম কিভাবে চলে ৫ – ৬ হাজার টাকা বেতনের চাকরি দিয়ে। আবার এখানে দেখা যাচ্ছে মুয়াজ্জিনদের ৫ – ৬ হাজার টাকার বেতন আবার তাও দিতে ৫ – ৭ দিন বা তারও অধিক গুরাগুরি করা লাগে। মাস শেষ ঠিক মত টাকা পায় না এমনি অভিযোগ অনেক আলেমদের। বর্তমানে ১ কেজী চালের দাম যদি ৫০ – ৬০ টাকা করে হয় তাহলে কিভাবে সম্ভব তাদের ঘর সংসার চলা।

তাই আমি আপনি সবাই আসুন তাদের জন্য কিছু করি। বর্তমান যুগ অনুসারে তাদের বেতন দাওয়ার জন্য চেষ্টা করি। সবাই আলেমদের সম্মান দিয়ে কথা বলি। কেননা আলেমরা আমাদের হযরত মুহাম্মদ (সঃ) এর ওয়ারিস (উত্তরসূরী) ।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন