আজ মঙ্গলবার, ১৭ জুলাই ২০১৮ ইং, ০২ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



স্কুলশিক্ষক থেকে প্রতিমন্ত্রী হয়েছেন, পূর্ণমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন

Published on 01 January 2018 | 8: 35 pm

খুলনার হাজার হাজার শিক্ষার্থীর প্রিয় স্যার খুলনা-৫ আসনের সংসদ সদস্য নারায়ণ চন্দ্র চন্দ যখন প্রতিমন্ত্রী হয়েছিলেন। এই খবরে যারপরনাই খুশি হয়েছিলেন খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার মানুষ। আনন্দ মিছিল ও মিষ্টিমুখ করেছেন তারা। রাজনীতির তৃণমূল থেকে ধাপে ধাপে উঠে আসা নায়ায়ণ চন্দ্র চন্দ বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক ও কর্মজীবনের অধিকারী। ক্লিন ইমেজের অধিকারী তিনি শেখ হাসিনার মন্ত্রিসভার অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন। দায়িত্ব পেয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে।
খুলনা জেলার ডুমুরিয়া উপজেলার উলা গ্রামের চন্দ বংশের কালীপদ চন্দের মেজো ছেলে নারায়ণ চন্দ্র চন্দের জন্ম ১৯৪৫ সালের ১২ মার্চ। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৬৬ সালে তিনি রাষ্ট্রবিজ্ঞানে অনার্স এবং ১৯৬৭ সালে একই বিষয়ে একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।
মাস্টার্স পরীক্ষা দিয়েই নারায়ণ চন্দ্র চন্দ ডুমুরিয়ার উপজেলার সাহস নোয়াকাটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। পরে ১৯৭৩ সালের প্রথম দিকে ডুমুরিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব গ্রহণ করেন। তিনি একটানা প্রায় ঊনচল্লিশ বছর শিক্ষকতা করেছেন।
১৯৬৭ সালে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত হন। ১৯৬৮ সালে ডুমুরিয়া থানা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক, ১৯৮৪ সালে সাধারণ সম্পাদক, ১৯৯৫ সালে ডুমুরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। একই পদে এখনো তিনি দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি আওয়ামী লীগ খুলনা জেলা কমিটির নির্বাহী সদস্য।
নারায়ণ চন্দ্র চন্দ বাংলাদেশের সর্ব প্রথম ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ডুমুরিয়া উপজেলার ভাণ্ডারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হন। এর পর একটানা ছয় বার একই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।
সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী সালাহউদ্দিন ইউসুফের মৃত্যুর পর ২০০০ সালের ২০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত উপনির্বাচনে নারায়ণ চন্দ্র চন্দ খুলনা-৫ (ডুমুরিয়া-ফুলতলা) আসনে প্রথমবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।
২০০১ সালের অষ্টম সংসদ নির্বাচনে তিনি চারদলীয় জোট প্রার্থীর কাছে পরাজিত হন।
২০০৮ সালের নবম সংসদ নির্বাচনে আবারও সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় তৃতীয়বারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন। প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ বলেন, মানুষ আমাকে ভালোবাসে। তাদের ভালোবাসায় আজকের এই অর্জন। জীবনের শেষ দিনটি পর্যন্ত মানুষের জন্যই কাজ করতে চাই। দক্ষিণাঞ্চলের চিংড়ি শিল্পসহ মৎস্য সেক্টরের উন্নয়নে কাজ করতে চাই। চাই সবার সহযোগিতা।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন