আজ বুধবার, ২৩ মে ২০১৮ ইং, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



সাবেক প্রেসিডেন্ট সেবাস্তিয়ান পিনয়েরা চিলির প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন

Published on 19 December 2017 | 9: 28 am

রক্ষণশীল ধনকুবের ও সাবেক প্রেসিডেন্ট সেবাস্তিয়ান পিনয়েরা চিলির প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন। প্রতিদ্বন্দ্বী বামপন্থি প্রার্থী আলেহান্দ্রো গিলিয়া পরাজয় স্বীকার করে নিয়ে পিনয়েরাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন, খবর বিবিসির।
প্রায় সব ভোট গণনার পর দেখা গেছে, পিনয়েরা ৫৪ শতাংশেরও বেশি ভোট পেয়েছেন। এই জয়ের মাধ্যমে চার বছর পর ফের চিলির প্রেসিডেন্ট হিসেবে ফিরলেন তিনি। চিলির বর্তমান প্রেসিডেন্ট সমাজতন্ত্রী মিশেল বাশিলেত নির্বাচনের গিলিয়াকে সমর্থন করেছিলেন। কিন্তু ভোটের ফলাফল দেশটির ফের ডানপন্থার দিকে ঝুঁকে পড়ার ইঙ্গিত দিচ্ছে বলে ধারণা বিশ্লেষকদের। দুই মেয়াদে চিলির প্রেসিডেন্ট থাকায় সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার কারণে নির্বাচনে দাঁড়াতে পারেননি প্রেসিডেন্ট বাশিলেত।
এবারের নির্বাচনে প্রথমবারের মতো ভোট দিয়েছেন প্রবাসী চিলীয়রা। এদের নিয়ে দেশটিতে প্রায় এক কোটি ৪০ লাখ ভোটার থাকলেও ভোট পড়ার হার ৫০ শতাংশেরও কম ছিল। মাত্র ৪৮ দশমিক পাঁচ শতাংশ ভোটার রান-অফে ভোট দিয়েছেন। ভোট পড়ার হার বেশি হলে ফলাফল গিলিয়ার অনুকূলে থাকত বলে মত বিশ্লেষকদের।
প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর সবাইকে একতাবদ্ধ হওয়ার ডাক দিয়েছেন পিনয়েতা। তিনি বলেন, ‘সংঘর্ষ থেকে সমঝোতাই চিলির বেশি প্রয়োজন। ভবিষ্যতের পথ আমাদের একতাবদ্ধ করবে। কখনো কখনো অতীতের কাহিনিগুলো আমাদের বিভক্ত করবে।’ যেসব বিষয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী গিলিয়া ও তার মতের মিল রয়েছে সেগুলোর বিষয়ে তিনি গিলিয়ার সঙ্গে আলোচনা করতে চান বলে জানিয়েছেন।
প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রথম পর্বের ভোটে বড় ব্যবধানে জয়ী হয়েছিলেন পিনয়েরা। ওই পর্বে আটজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। এর আগে ২০১০ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত চিলির প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্বপালন করেছেন পিনয়েরা। এবারের নির্বাচনী প্রচারের সময় অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির জন্য কর কমানোর প্রতিশ্রুতি দিয়ে ব্যবসায়ী মহলগুলোর সমর্থন আদায় করে নিয়েছিলেন তিনি। অপর দিকে, ছয় দলীয় বামপন্থি জোটের প্রতিনিধি ছিলেন গিলিয়া। তিনি প্রেসিডেন্ট বাশিলেতের সংস্কার কার্যক্রম অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছিলেন।
এক দশক আগে লাতিন আমেরিকার আর্জেন্টিনা, বলিভিয়া, ব্রাজিল, চিলি, কিউবা, ইকুয়েডর, হন্ডুরাস, নিকারাগুয়া, উরুগুয়ে, ভেনিজুয়েলায় বামপন্থি সরকার ক্ষমতায় ছিল। কিন্তু সাম্প্রতিক বছরগুলোতে আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল ও প্যারাগুয়েতে রক্ষণশীলরা ক্ষমতায় এসেছে। চিলিতে পিনয়েরার জয় সেই ধারায় যুক্ত হলো।

 


Advertisement

আরও পড়ুন