আজ বুধবার, ১৫ আগষ্ট ২০১৮ ইং, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



মেজর মান্নানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক

Published on 25 December 2015 | 4: 16 am

বাংলাদেশ ইন্ড্রাস্ট্রিয়াল ফাইন্যান্স কোম্পানি (বিআইএফসি) থেকে ৭০৯ কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে বিকল্পধারার মহাসচিব মেজর (অব.) আব্দুল মান্নানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বাজার বিভাগ থেকে মঙ্গলবার (২২ ডিসেম্বর) বিআইএফসি’র পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যানের কাছে এ বিষয়ক চিঠি দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র শুভঙ্কর সাহা বাংলানিউজকে বলেন, জালিয়াতির মাধ্যমে প্রভাব খাটিয়ে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নেওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পর্ষদকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী, কোনো আর্থিক প্রতিষ্ঠানের পরিচালকের নিজের নামে বা স্বার্থসংশ্লিষ্ট কোনো প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে ঋণ নিতে হলে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পূর্বানুমতি নিতে হয়। কিন্তু কোনো ধরনের অনুমোদন ছাড়াই তথ্য গোপন করে বিআইএফসি থেকে ৭০৯ কোটি ঋণ নিয়েছেন মেজর (অব.) আবদুল মান্নান।

বিভিন্ন গ্রাহকের অগোচরে তাদের ঋণ হিসাবের বিপরীতে শ্যাডো অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে পরিচালকদের অবৈধভাবে অর্থ উত্তোলনের ঘটনাও খুঁজে পেয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিদর্শক দল। তার উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত ব্যাংক বহির্ভূত এ আর্থিক প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদে প্রভাব খাটিয়ে এ বিপুল পরিমাণের ঋণ নেন তিনি।

আইন লঙ্ঘন করে বিপুল পরিমাণ ঋণ নেওয়ায় তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতেই এই চিঠি দেওয়া হয়েছে।

বিআইএফসির উদ্যোক্তা পরিচালকদের অন্যতম বিকল্প ধারার মহাসচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নান। তিনি কয়েক দফায় এ কোম্পানির চেয়ারম্যানও ছিলেন। বর্তমানে লোকসানি এ প্রতিষ্ঠানের বড় অংশের মালিকানা মূল উদ্যোক্তা হিসেবে তার ও পরিবারের সদস্য এবং স্বার্থসংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের কাছে রয়েছে। অন্যদিকে, ৫০ শতাংশের মালিকানা রয়েছে তিনটি বিদেশি কোম্পানির কাছে।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন