তরুন পীর আহসান হাবীব পিয়ার গ্রেফতার

 জিন ও ভূত তাড়ানোর নামে তরুণীদের সঙ্গে পর্নো ভিডিও ধারণ করে প্রতারণা করার অভিযোগ উঠেছে আহসান হাবিব পিয়ার নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। তিনি নিজেকে পীর দাবি করেন। তথ্যপ্রযুক্তি ও পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে গ্রেপ্তার আহসান হাবিবকে দুদিনের রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। আজ বুধবার আজ ঢাকার মহানগর হাকিম এ কে এম মঈন উদ্দিন সিদ্দিকী এ আদেশ দেন। ঢাকার অপরাধ, তথ্য ও প্রসিকিউশন বিভাগের উপকমিশনার আনিসুর রহমান জানান, খিলগাঁও থানার পুলিশ আসামি পিয়ারকে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে আজ হাজির করে সাতদিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক এ আদেশ দেন। গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাতে রাজধানীর খিলগাঁও এলাকা থেকে পুলিশের কাউন্টার টেররিজমের সাইবার ক্রাইম ইউনিট আসামি পিয়ারকে গ্রেপ্তার করে।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, আহসান হাবিব পিয়ার দাওরায়ে হাদিসে পড়াশোনা করেছেন। নিজেকে এএইচপি টিভির সাংবাদিক বলে পরিচয় দিতেন এবং নিজের ইউটিউব চ্যানেলে ধর্মের কথা বলে জনপ্রিয়তা অর্জন করেন পিয়ার। সম্প্রতি তিনি নিজেকে পীর দাবি করে জিন তাড়ানোর কথা বলে মেয়েদের নির্যাতন করতেন বলে মামলার এজাহারে বলা হয়েছে। এ ছাড়া বিভিন্ন সময় মেয়েদের সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে যৌন উত্তেজক কথা বলে এবং পরে এদের অনেককে নিজ বাসায় এনে প্রতারণা করে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করতেন। এ ঘটনায় পিয়ারের বিরুদ্ধে খিলগাঁও থানায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এবং পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেছেন একাধিক ভুক্তভোগী তরুণী।তবে কেউ কেউ বলছেন আহসান হাবিব পিয়ার এর গ্রেফতারের পেছনে সড়যন্ত্র রয়েছে, সে নিরদোষ; তবে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার ”বক্তব্য সঠিক তদন্ত ও ্আদালতের রাযের মাধ্যমে আসল সত্য বেরিয়ে আসবে। 

minhaj rudvi

Leave a Reply

Top
%d bloggers like this:
Web Design BangladeshBangladesh Online Market