আজ সোমবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৮ ইং, ১০ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



ভ্যাটের হার ১৫ শতাংশই: অর্থমন্ত্রী

Published on 28 May 2017 | 3: 29 am

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত অবশেষে সুর পাল্টে ফেললেন। তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, ভ্যাটের হার ১৫ শতাংশই থাকছে। নতুন মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) আইনে এই হার কমবে বলে এতদিন বলে আসলেও এখন তা থেকে সরে এলেন তিনি।

অর্থমন্ত্রী বলেছেন, ভ্যাটের হার ১৫  শতাংশই থাকছে এবং রেট হবে একটাই। শনিবার সন্ধ্যায় সচিবালয়ে তার দফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি।

সোমবার এ বিষয়ে গনমাধ্যমে বিবৃতি দেবেন বলেও জানান তিনি।

এমন এক সময় অর্থমন্ত্রী এ কথা জানালেন যখন ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণার মাত্র চার দিন বাকি। তবে ভ্যাটের হার অপরিবর্তীত থাকার কথা বললেও ভ্যাট পরিশোধে আরও বেশি লোককে ছাড় দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ভ্যাটের লেনেদেন সীমা বর্তমানের চেয়ে আরও বাড়ানো হবে। এর ফলে বেশির ভাগ ছোট ব্যবসায়ী ভ্যাটের আওতার বাইরে থাকবেন এবং স্বস্তি পাবেন।

আগামী অর্থবছরের বাজেট নিয়ে শনিবার দিনভর অর্থমন্ত্রণালয় ও এনবিআরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করে তা চূড়ান্ত করেন অর্থমন্ত্রী। এর পর সন্ধ্যায় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। অর্থমন্ত্রী এ সময় নতুন ভ্যাট আইনসহ আগামী বাজেটের বিভিন্ন দিক নিয়ে কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী স্বীকার করেন, নতুন ভ্যাট আইন নিয়ে এবার সবচেয়ে বেশি আলোচনা হচ্ছে এবং আইনটি বাস্তবায়ন করা তার জন্য কঠিন হবে।

এর আগে ভ্যাটের হার কমানো হবে বলে বিভিন্ন সময়ে গণমাধ্যমসহ ব্যবসায়ীদের আশ্বস্ত করেন মুহিত। রেট কত কমানো হবে তা না বললেও স্বস্তিদায়ক অবস্থানে নির্ধারণ করা হবে বলে জানান তিনি।

এরআগে, গত ১৪ মে এক বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী তাকে সহনীয় পর্যায়ে ভ্যাট হার নির্ধারনের নির্দেশ দেন। গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত অর্থমন্ত্রী ভ্যাট হার কমানোর পক্ষেই ছিলেন বলে জানা গেছে। ওই দিন সন্ধ্যায় ফের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে করেন মুহিত। এরপর শনিবার ভ্যাট হার নিয়ে সুর বদলে ফেলেন অর্থমন্ত্রী।

এফবিসিসিআইসহ শীর্ষ ব্যবসায়ীরা ভ্যাট হার কমিয়ে কমপক্ষে ১০ শতাংশ এবং আগের মতো নির্দিষ্ট খাতে একাধিক হৃাসকৃত হারে ভ্যাট হার নির্ধারনের দাবি জানিয়ে আসছেন। তা না হলে নতুন ভ্যাট আইন বাস্তবায়ন কঠিন হবে বলে মনে করছেন ব্যবসায়ীরা। তারা বলছেন, এই আইন কার্যকর হলে পন্যমূল্য বেড়ে যাবে। বাড়বে জন অসন্তোষ। অর্থনীতিবিদরা একই আংশকা ব্যক্ত করেন।

সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে জানান, ভ্যাটের হার ১৫ শতাংশ বহাল রাখার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে সমর্থন করেছেন। কারণ প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি ছাড়া বাজেট হয় না। আরেক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, নতুন আইন কার্যকর হলে দ্রব্যমূল্য বাড়বে না, বরং আরও কমবে। মুহিত বলেন, তার দেওয়া প্রতিটি বাজেটের পর বাজারে কখনোই জিনিসপত্রের দাম বাড়েনি। এবারও বাড়বে না।


Advertisement

আরও পড়ুন