আজ সোমবার, ১৬ জুলাই ২০১৮ ইং, ০১ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



বুবলীর সঙ্গে শাকিবের মেলামেশা মেনে নিতে পারেননি চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস

Published on 10 April 2017 | 8: 04 pm

২০০৬ সালে ‘কোটি টাকার কাবিন’ চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়ে শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের জুটি গড়ে ওঠে। এরপর কয়েকটি ব্যবসা সফল ছবি আসে তাদের জুটিতে। অপু দীর্ঘ সময় লোকচক্ষুর আড়ালে থাকার সময়ে শাকিব তার নতুন নায়িকা হিসেবে বেছে নেন টিভি উপস্থাপিকা বুবলীকে।
এদিকে আড়ালে থাকার সব রহস্য উন্মোচন করে দিয়েছেন চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। সোমবার হঠাৎ করে তিনি আসেন জনসমক্ষে। সবাইকে চমকে দিয়ে এক টিভি অনুষ্ঠানে বলেন, দেশের খ্যাতিমান চিত্রনায়ক শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ে হয়েছে তার। শুধু তাই নয়, তাদের একটি সন্তান আছে, তার নাম আব্রাহাম খান জয়। তার এই কথায় অনেকে যেমন চমকে গেছেন, তেমনি প্রশ্নের পর প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন তার সামনে।
অপুর দাবি, শাকিবের জন্য আমি আমার ক্যারিয়ারের কথা ভাবিনি। শাকিবের জন্য নিজের ক্যারিয়ার বিসর্জন দিয়েছি। আমার প্রাণের ছবি ‘বসগিরি’ শাকিবের জন্য ছেড়ে দিয়েছি। তার ছেড়ে যাওয়া সিনেমাতেই মূলত কাজ করার সুযোগ পান বুবলী।
শিগগিরই ফের কাজে ফেরার প্রত্যয় ব্যক্ত করে অভিনেত্রী অপু বলেন, ‘কি কি সিনেমা অসমাপ্ত রেখেছিলাম, সব মনে আছে। বুবলী কাজ করছে করুক তার জন্য শুভকামনা।’ তবে তিনি বলেন, ‘বুবলীর বুঝতে পারা উচিৎ শকিবের স্ট্যাটাসটা কি। শাকিব আর আমার সম্পর্কটা কি।’
আসলে শাকিবের সাথে কয়েকটি সিনেমায় অভিনয় করার পর গুঞ্জন ছড়াতে থাকে শাকিব-বুবলীর বিশেষ সম্পর্ক নিয়ে। ‘রংবাজ’ সিনেমাতে অভিনয় করার কথা ছিল অপু বিশ্বাসেরও। কিন্তু বুবলী এতে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন।
আর এখানেই ঘটনার সূত্রপাত। বুবলীর সঙ্গে মেলামেশা মেনে নিতে পারেননি চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। ফোনে কথাকাটাটিও হয় বুবলী-অপুর মধ্যে।
গত মার্চে বুবলী নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে শাকিব খানের সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করেন, ছবির ক্যাপশনে লেখেন ‘ফ্যামিলি টাইম’। সে রাতেই বুবলীকে ফোন দেন অপু বিশ্বাস। এরপর বুবলী সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, অপু ফোন করে তাকে হুমকি দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আমার সঙ্গে মাত্র ৫০ সেকেন্ডের মতো কথা হয়েছে। পুরো সময়টাই সে আমাকে গালি দিয়েছে এবং হুমকি দিয়েছে।’
বুবলীকে ফোনে গালাগালি করার বিষয়টিও স্বীকার করে সোমবার অপু বিশ্বাস বলেন, নিজের সন্তানের ভবিষ্যৎ চিন্তা করে নিজেকে ঠিক রাখতে না পেরে এমনটি তিনি করে বসেন। এমনকি বুবলীর কাছে লাইভ অনুষ্ঠানে এর জন্য দুঃখও প্রকাশ করেন অপু।
টেলিভিশন লাইভে বুবলীকে নিয়ে অপুর নানা মন্তব্যের বিষয়ে এখনও কিছুই বলেননি বুবলী। তিনি একেবারেই নিশ্চুপ। সোমবার রাতে বুবলীকে  একাধিকবার ফোন করার পরও তিনি ফোন ধরেননি।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন