আজ বুধবার, ১৮ জুলাই ২০১৮ ইং, ০৩ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



সৌম্য-ইমরুল ঘিরে মাশরাফির আক্ষেপ

Published on 04 January 2017 | 6: 08 am

ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতা আর নিঃসঙ্গ রিয়াদের অর্ধশতকে সম্মানজনক স্কোর দাঁড় করানো গেলেও অধিনায়ক যেখানে মাশরাফি সেখানে স্কোরটা ফাইটিং স্কোর হবে, এটাই স্বাভাবিক। হচ্ছিলও ঠিক তাই।

তবে শেষ অবধি আর লড়াইটা চালিয়ে যাওয়া সম্ভব হলো না। ৬২ রানের মধ্যে নিউজিল্যান্ডের ৪ উইকেট তুলে নেয়া গেলেও ৬ উইকেটের বিশাল জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে কিউইরা।

ম্যাচ শেষে তাই পরাজয়ের আক্ষেপ ধরা দিল অধিনায়কের কণ্ঠে। আর সেই আক্ষেপে উঠে আসলো একজনের নাম। তিনি হলেন সৌম্য সরকার।

কেন উইলিয়ামসন আর কলিন গ্র্যান্ডহোমের জুটিই গতকাল বাংলাদেশের হারের অন্যতম কারণ। তবে এই উইলিয়ামসন সাকিবের করা ১৪তম ওভারেই প্যাভিলিয়নে ফেরত যেতে পারতো। যদি সৌম্য সরকার ডিপ মিড উইকেটে ঠিক জায়গাটায় দাঁড়াতেন।

সৌম্য সেখানে দাঁড়াননি, দাঁড়িয়েছিলেন প্রায় দশ গজ ভেতরে। আর সে কারণেই কেন উইলিয়ামসনের করা স্লগ সুইপ, যেটা মিড উইকেট ফিল্ডারের সহজ ক্যাচ হওয়া উচিত ছিল, সেটা সৌম্যর মাথার ওপর দিয়ে চার হয়েছে।

ম্যাচ শেষে মাঠে সৌম্যের অবস্থান সঠিক স্থানে ছিল কিনা সেটা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। ক্যাপ্টেনের নির্দেমনা ছাড়া কেনো তিনি এত ভেতরে দাঁড়িয়েছিলেন সেই বিষয়েই কথা উঠেছে। কারণ অধিনায়কের কোনো নির্দেশনা না থাকলে ফিল্ডার স্থান পরিবর্তন করতে পারে না।

তাই ম্যাচশেষের সংবাদ সম্মেলনে ওই ক্যাচ নিয়ে মাশরাফির কণ্ঠে ছিল আক্ষেপ। বললেন, ‘সৌম্যের প্রতি উপরে দাঁড়ানোর কোনো নির্দেশনা ছিল না। ওই দিকে মাঠ একটু বড় বলে হয়তো সে উপরে দাঁড়িয়েছিল। হয়তো চিন্তা করেছে যে, ক্যাচ উঠলে পেছনে গিয়ে মুঠোবন্দি করতে পারবে; কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে পারেনি।’

উইলিয়ামসন তখন আউট হলে কিউইদের সংগ্রহ দাঁড়াত পাঁচ উইকেটে ৮১ রান। মাশরাফি নিজেও মনে করেন, সৌম্য ওই ক্যাচটা নিতে পারলে ম্যাচে বাংলাদেশের সম্ভাবনা অনেকটাই বেড়ে যেত।

মাশরাফি বলেন, ‘ও যদি ক্যাচটা নিতে পারত, খেলাটা হয়তো আমাদের দিকে আসত। কারণ, নিউজিল্যান্ডের জিততে তখনও প্রায় আট করে লাগত। সে সময় ওদের মূল ব্যাটসম্যানদের মধ্যে কেবল উইলিয়ামসনই ছিল।’

সৌম্য ছাড়া ইমরুলও সেই স্থান পরিবর্তনের কাজ করে ক্যাচ মিস করেন। ১৬তম ওভারে সেই উইলিয়ামসনেরই ক্যাচ উঠে, তবে নিজ জায়গার চেয়ে বেশ খানিকটা ভেতরে দাঁড়ানো ইমরুল ক্যাচটি ধরতে পারেনি।

তাই মাশরাফির আক্ষেপ, ‘দুটি সুযোগের একটি কাজে লাগানো উচিত ছিল।’


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন