আজ শুক্রবার, ২২ জুন ২০১৮ ইং, ০৮ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



এটা যান্ত্রিক ত্রুটি ছিল, আর কিছুই না: প্রধানমন্ত্রী

Published on 04 December 2016 | 3: 09 am

আন্তর্জাতিক পানি সম্মেলনে যোগ দিতে হাঙ্গেরি যাওয়ার পথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমানের জরুরি অবতরণ নিছক যান্ত্রিক ত্রুটি ছিল বলে জানিয়েছেন তিনি।

বুদাপেস্টে পানি সম্মেলন-২০১৬ থেকে ফিরে শনিবার বিকাল ৪টায় গণভবনে সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী একথা বলেন।

এসময় ‘জীবন মৃত্যু পায়ের ভৃত্য’- চরণটি উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘এটা যান্ত্রিক ত্রুটি ছিল। আর কিছুই না। আল্লাহর রহমতে সহি-সালামাতে ফিরে এসেছি। যান্ত্রিক ত্রুটি হতেই পারে। সবার দোয়া চাই।’

প্রশ্নোত্তর পর্বে সিনিয়র এক সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আপনারা জানেন, আমার বাবা-মাকে সপরিবারে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে। জীবনের ঝুঁকি নিয়েই মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য আমি এসেছি। ঝুঁকির মধ্যে আছি, চলতে থাকবো।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দুর্ঘটনা যান্ত্রিক কারণে হতে পারে আবার মনুষ্য সৃষ্টিও হতে পারে। তবে দুর্ঘটনা ঘটতেই পারে। এনিয়ে এতো টেনশন করার কিছু নেই।’

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর জন্য আলাদা বিমান কেনা হবে কি না-এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘এই মুহূর্তে সরকারের আলাদা বিমান কেনার প্রয়োজন নেই। রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর জন্য আলাদা এয়ারক্রাফট কেনা বিলাসিতা। আমি এটা করতে চাই না। সাধারণ মানুষের জন্য রাজনীতি করি, তাদের মতো করেই চলতে চাই।’

আসন্ন ভারত সফরে তিস্তা চুক্তি সইয়ের সম্ভাবনা আছে কি না- এমন প্রশ্নে শেখ হাসিনা বলেন, ‘শর্ত দিয়ে সফর হচ্ছে না। তবে তিস্তা নিয়ে আলোচনা চলছে, আমরা আশাবাদী। আমাদের মত আমরা কাজ করছি।’


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন