আজ শনিবার, ২৩ জুন ২০১৮ ইং, ০৯ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



ফের এমন করলে আজীবন নিষিদ্ধ হবেন সাব্বির: বিসিবি

Published on 03 December 2016 | 3: 02 pm

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড-বিসিবি জানিয়েছে, নিজের দোষ স্বীকার করেই শাস্তি পেয়েছেন রাজশাহী কিংসের আইকন ক্রিকেটার সাব্বির রহমান। আবার এমন ঘটনা ঘটলে হতে পারেন আজীবন নিষিদ্ধ।

শনিবার সন্ধ্যায় একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলকে কথা জানিয়েছেন বিসিবি পরিচালক ও বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব এএইচ মল্লিক।

তিনি বলেন, ‘বিপিএলের কথা মাথায় রেখে সাব্বিরকে কম শাস্তি দেয়া হয়েছে। তবে ভবিষ্যতে দ্বিতীয়বার এ ধরনের ঘটনা ঘটলে আজীবন নিষিদ্ধ হতে পারেন তিনি। আমাদের বোর্ড প্রেসিডেন্ট এ ব্যাপারে খুবই কঠোর।’

এর আগে শুক্রবার রাতে সাব্বির রহমান তার ফেসবুক পেজে নিজেকে নির্দোষ দাবি করে একটি ভিডিও শেয়ার করেন। সেই ভিডিও সবাইকে ছড়িয়ে দেয়ারও আহ্বান জানান তিনি।

সেখানে তিনি প্রশ্ন তোলেন, তার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে তা কী তিনি করতে পারেন? এখানেও অবশ্য সাব্বির স্পষ্ট করে কিছু জানাননি যে তার বিরুদ্ধে আসলে অভিযোগটা কী।

তবে ১ মিনিট ১৭ সেকেন্ডের যে ভিডিও তিনি শেয়ার করেছেন তা শুনে বোঝা যাচ্ছে নারীঘটিত কোনো কারণেই তাকে জরিমানা করা হয়েছে। তবে তার বিরুদ্ধে যে অভিযোগই আনা হোক না কেন তা অস্বীকার করেছেন সাব্বির।

তিনি বলেন, ‘ছোট থেকে বয়স্ক, ছেলেমেয়ে অনেকেই আমার ভক্ত। তারা যদি আমার সঙ্গে ছবি তুলতে চান তাহলে কী আমি সেটা না করতে পারি।’

সাব্বির রহমান বলেন, ‘আমি যখন শপিং মলে শপিং করতে যাই বা সিনেমা হলে সিনেমা দেখতে যাই কিংবা রেস্টুরেন্টে খেতে যাই, তখন অনেক ভক্তই এসে ছবি তুলতে চায়। এদের মধ্যে অনেকেই আবার সিঙ্গেল ছবি তোলেন। সেই ছবি আবার ফেসবুকে দেন।’

তিনি বলেন, ‘এখন সেই ছবির যদি কেউ অপব্যবহার করেন, সেটা কি আমার দোষ। আর আপনাদের কী বিশ্বাস হয়- আমি এমন কাজ করতে পারি? যদি বিশ্বাস করেন তাহলে আমার কিছু বলার নাই। আর যদি মনে করেন যে আমি এসব করতে পারি না, তাহলে এই ভিডিও শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দেন। সবাই জানুক ও বুঝুক- আমি এমন কাজ কখনই করতে পারি না।’

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি শৃংখলাভঙ্গের অভিযোগে বিপিএলের পারিশ্রমিকের ৩০ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে রাজশাহী কিংসের ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমানকে। এবারের বিপিএলে সাব্বিরের পারিশ্রমিক ছিল ৪০ লাখ টাকা।

একই অভিযোগে বরিশাল বুলসের পেসার আল আমিনকেও বিপিএলের পারিশ্রমিকের ৫০ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে। আল আমিনের পারিশ্রমিক ছিল ২৫ লাখ টাকা।

তবে জাতীয় দলের এই দুই ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে ম্যাচ ফিক্সিং বা স্পট ফিক্সিংয়ের কোনো অভিযোগ নেই। দুই ক্রিকেটার ঠিক কী করেছেন তাও স্পষ্ট করে জানাতে রাজি নয় বিসিবি।

গত বুধবার মিরপুর শেরে-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিসিবি পরিচালক ও বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব মল্লিক জানান, তারা কোনো ফিক্সিং করেননি। তবে কী ধরনের শৃংখলাজনিত কারণে এই শাস্তি হয়েছে তা প্রকাশ্যে জানাতেও রাজি হননি মল্লিক।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন