আজ বুধবার, ১৫ আগষ্ট ২০১৮ ইং, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



নতুন ওষুধ আবিষ্কার ও ড্রাগ ডিজাইন ল্যাব উদ্বোধন

Published on 01 December 2016 | 3: 03 am

বিসিএসআইআর গবেষণাগার চট্টগ্রামে বাংলাদেশের প্রথম ড্রাগ ডিজাইন ল্যাবরেটরির (এমএমডিডিএল) উদ্বোধন করা হয়েছে। এই ল্যাবরেটরি ব্যবহার করে বিজ্ঞানীরা কম্পিউটারের সহায়তায় নতুন ওষুধ আবিষ্কার এবং ড্রাগ ডিজাইনের কাজ করবেন। গতকাল বুধবার সকাল ১০টায় বিসিএসআইআর গবেষণাগার চট্টগ্রামে বাংলাদেশের প্রথম কম্পিউটারের সহায়তায় ‘মলিকুলার মডেলিং এন্ড ড্রাগ ডিজাইন ল্যাবরেটরি (এমএমডিডিএল)’র উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ফারুক আহমেদ। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিসিএসআইআর ল্যাবরেটরীর সচিব মো. খলিলুর রহমান, সভাপতিত্ব করেন বিসিএসআইআর ল্যাবরেটরি চট্টগ্রামের পরিচালক মাহমুদা খাতুন। অনুষ্ঠানে উক্ত প্রতিষ্ঠানের সকল বিজ্ঞানী এবং কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথি মো. ফারুক আহমেদ বলেন, গবেষণাগারটি আধুনিক প্রযুক্তি সম্বলিত। যুগোপযোগী গবেষণার এক কেন্দ্রে পরিণত হবে এই ল্যাবরেটরি। অনুষ্ঠানে তিনি বাংলাদেশে প্রথম উদ্ভিদ থেকে প্রাপ্ত বায়োএকটিভ যৌগের ভার্চুয়াল ডাটাবেস, বিসিএসআইআর চট্টগ্রাম ও এমএমডিডিএলর ওয়েবসাইট উদ্বোধন করেন। এমএমডিডিএল’র স্থাপন ও কার্যক্রমকে সাধুবাদ জানান এবং একে একটি যুগোপযোগী গবেষণাগার ক্ষেত্র হিসেবে আখ্যায়িত করেন।

এমএমডিডিএল প্রকল্পের প্রধান ও বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা এস এম জাহিদ হোসেন আজাদীকে জানান, বিসিএসআইআর এ ওষুধী গাছ নিয়ে নতুন ওষুধ আবিষ্কারের জন্য আমরা কাজ করি। এটা বাংলাদেশে প্রথম ‘ড্রাই ল্যাব’। এমএমডিডিএল এ একসঙ্গে ১৫জন বিজ্ঞানী কাজ করতে পারবেন বলেও জানান জাহিদ হোসেন। তিনি বলেন, গত প্রায় এক বছর ধরে এই ল্যাবরেটরিটিতে ২০০ শিক্ষার্থীশিক্ষকগবেষক প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। আজ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হলো। প্রতি বছর চার বার এ ধরনের প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হবে।

এখানে কম্পিউটাররে মাধ্যমে মডেল তৈরি করে মানব শরীরে নতুন ওষুধের প্রভাব পরীক্ষা করা হবে, যা বাস্তব প্রয়োগের অনেকটাই কাছাকাছি ফলাফল দেবে। এতে কম খরচে এবং স্বল্প সময়ে ড্রাগ ডিজাইন ও ওষুধ আবিষ্কার সম্ভব হবে। অনুষ্ঠানে ভবিষ্যৎ ফার্মাসিটিক্যাল ড্রাগ ডিস্কোভারির ক্ষেত্রে কম্পিউটারের সহায়তায় ড্রাগ ডিজাইন ও উন্নয়ন শীর্ষক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন এমএমডিডিএল এর প্রকল্প প্রধান ও বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা এস এম জাহিদ হোসেন। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন বিসিএসআইআর পরিষদের সচিব মো খলিলুর রহমান এবং অত্র গবেষণাগারের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান ভূঁঞা এবং ড. মোহাম্মদ মোস্তফা। বক্তারা ভবিষ্যৎ ড্রাগ ডিস্কোভারির জন্য এমএমডিডিএল’র কার্যক্রমকে যুগান্তকারী পদক্ষেপ হিসেবে আখ্যায়িত করেন।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন