আজ শনিবার, ২৩ জুন ২০১৮ ইং, ০৯ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



ডাকাতের হামলায় আহত নাটোরের কাউন্সিলরের মৃত্যু

Published on 21 November 2016 | 7: 31 am

ডাকাতদের হামলায় আহত নাটোর পৌরসভার কাউন্সিলর মোশতাক আহমেদ মারা গেছেন। ৪৪ দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তিনি স্কয়ার হাসপাতালের নিবীড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্কয়ার হাসপাতালের মেডিসিন অ্যান্ড ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিটের চিকিৎসক ডা. মির্জা নাজিম উদ্দীন।

তিনি বলেন, মোশতাক আহমেদের অবস্থতার অবনতি হলে গতকাল রাত ৯টার দিকে আইসিইউতে নিয়ে যাওয়া হয়। রাত সাড়ে ৩টার দিকে তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়। আজ সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তিনি মারা যান।

মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে বলে জানান এই চিকিৎসক। ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক বাচ্চু মিয়া পৌনে ১টার দিকে বলেন, এখনো মোশতাক নামের কোনো ব্যক্তির মরদেহ ঢামেক হাসপাতালে আসেনি। এ ধরনের তথ্যও তাদের কাছে নেই।

গত ৮ অক্টোবর রাতে ঢাকা থেকে একটি প্রাইভেট কারে করে নাটোরে ফেরার পথে ডাকাতদের কবলে পড়েন মোশতাক আহমেদসহ চারজন। নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকায় মহাসড়কের ৬ নম্বর সেতুর ওপর তারকাঁটা ফেলে গাড়ির গতিরোধ করে ডাকাতেরা। তারা মোশতাকসহ অন‌্যদের দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে। পরে গাড়িতে থাকা ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা ও তিনটি মোবাইল ফোন নিয়ে চলে যায়।

ওই ঘটনায় অন‌্য আহতরা হলেন- নাটোর পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, নাটোরের লালবাজার এলাকার আশুতোষের ছেলে সঞ্জয় ও মুকুল চন্দ্র সাহার ছেলে মিঠুন সাহা।

 


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন