আজ রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮ ইং, ১০ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতা দিয়াজ ইরফান চৌধুরীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

Published on 20 November 2016 | 7: 51 pm

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের একাংশের নিয়ন্ত্রক দিয়াজ ইরফান চৌধুরীর (২৫) ঝুলন্ত লাশ পাওয়া গেছে।

বিশ্ববিদ্যালয় ২ নম্বর গেট এলাকার নিজ বাসায় ফ্যানের সঙ্গে ঝোলানো অবস্থায় তার মরদেহ পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে দিয়াজের মৃত্যুর খবর ক্যাম্পাসে এবং ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা দিয়াজের বাসার আশপাশে ভিড় জমায়।

দিয়াজ ইরফান চট্টগ্রামের মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিনের অনুসারী ছিলেন।

চট্টগ্রামের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (উত্তর) এইচ এম মশিউদ্দৌলা রেজা বলেন, বাসার ভেতর লাশ ঝুলছে- এমন খবর পেয়ে হাটহাজারী থানা থেকে পুলিশ সেখানে যায়। দরজা ভেঙে বাসায় প্রবেশের পর ঝুলন্ত অবস্থায় লাশ পাওয়া গেছে।

হাটহাজারী থানার ওসি বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর বলেন, কীভাবে মৃত্যু হয়েছে সেটা তদন্তসাপেক্ষে বলা যাবে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহসভাপতি শোভন শুভ বলেন, রাত পৌনে ১০টার দিকে পুলিশ দরজা ভেঙে বাসার ভেতর ঢুকে।

তিনি জানান, সম্প্রতি আভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে দিয়াজের বাসায় ভাংচুর হয়। এরপর থেকে তার মা ও বোন ওই বাসায় থাকেন না। তার ছোট ভাই ঢাকায় থাকেন। দিয়াজ একাই বাসায় থাকতেন।

শোভন শুভ বলেন, শত্রুতার জেরে কেউ তাকে খুন করে মরদেহ ঝুলিয়ে দিয়েছে কি না সেটা তদন্ত করে দেখা উচিত।

সম্প্রতি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে মেয়রের অনুসারী ছাত্রলীগের মধ্যে দুটি ধারার সৃষ্টি হয়। একটি ধারার নেতৃত্বে আছেন বর্তমান সভাপতি আলমগীর টিপু। আরেকটি ধারার নেতৃত্ব দিতেন দিয়াজ।

দলীয় কোন্দলের জেরে সম্প্রতি দিয়াজের বাসায় ব্যাপক ভাংচুর ও তাণ্ডব চালানো হয়। এই ঘটনার পর তার মাকে থানায় মামলা করতে গিয়ে হেনস্থা হতে হয়।

ঘটনাস্থলে গিয়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সানজিদা জিনিয়া বলেন, ‘এটি আত্মহত্যা কিনা জানি না। দিয়াজের পা খাটের সঙ্গে লাগানো দেখলাম।’


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন