আজ শনিবার, ২৩ জুন ২০১৮ ইং, ০৯ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান মানুষের মধ্যে সম্প্রীতির সেতু বন্ধন করে

Published on 12 November 2016 | 7: 19 am

পটিয়া ভাটিখাইনে দুইদিনব্যাপী সার্বজনীন শ্রীশ্রী জগদ্বাত্রী পূজা-২০১৬

ধর্ম মানুষকে পরিশীলিত করে আর প্রকৃত মানুষে রূপান্তরিত করে। ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান মানুষের মধ্যে সম্প্রীতির সেতুন বন্ধন করে। সম্প্রীতি আর সদ্ভাব না থাকলে সমাজ রাষ্ট্রী উন্নয়ন সম্ভব নয়। এরকম আচার অনুষ্ঠানই আমাদের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে আবদ্ধ করে। সাংস্কৃৃতিক উন্নয়ন হলে মানুষ গন্ডীবদ্ধতা থেকে বেরিয়ে মুক্ত চিন্তা লালন করতে পারবে বলেন বক্তারা।
চট্টগ্রামের প্রাচীন জনপদ পটিয়া উপজেলাধীন বর্ধিষ্ণু ভাটিখাইন জনকল্যাণ সংসদের উদ্যোগে প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও সাড়ম্বরে দুইদিনব্যাপী সার্বজনীন শ্রীশ্রী জগদ্বাত্রী পূজা-২০১৬‘ গত ৮ ও ৯ নভেম্বর, মঙ্গল ও বুধবার অনুষ্ঠিত হয়।

ভাটিখাইন শ্রীশ্রী শশ্মান কালী বাড়ী মাঠ প্রাঙ্গণে কমসূচীর প্রথম দিন অধিবাসকৃত অনুষ্ঠান শেষে আলোচনা ও সংবর্ধনা সভা অনুষ্ঠান ৮ নভেম্বর মঙ্গলবার উদযাপন পরিষদের সভাপতি সংগঠক অসীম কান্তি দে মহোদয়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিঠুন দত্তের সঞ্চালনায় পবিত্র গীতা পাঠ করেন ছোট্টমনি অন্তু ভট্টচার্য্য।

সভার উদ্বোধন করেন প্রবীণ শিক্ষাবিদ বাবু ননী গোপাল পাল, সংবর্ধিত অতিথি ছিলেন ১৪নং ভাটিখাইন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: বখতিয়ার ও ইউপি সদস্য-সদস্যাবৃন্দ।

প্রধান বক্তা ছিলেন পটিয়া উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সম্পাদক পুলক চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পূজা পরিষদ সহ সম্পাদক কান্তিলাল ভট্টাচার্য্য, সাবেক চেয়ারম্যান জনাব মাহবুবুল আলম, শিক্ষক মিলন কান্তি বড়–য়া, শিক্ষক সন্তোষ কুমার বড়–য়া, শিক্ষক মিলন চক্রবর্ত্তী, শিক্ষক রঞ্জিত নাথ, দীপক পাল, রনজিত দে, তপন পাল, সাগর দত্ত, কৃষ্ণ দে, রুবেল দে প্রমুখ।
সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে আলোচনা সভার পূর্বে সহস্রাধিক নর-নারী মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করেন। অনুষ্ঠানের ২য় দিন ৯ নভেম্বর সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন চট্টগ্রামের জনপ্রিয় শিল্পী প্রেম সুন্দর বৈষ্ণব, নিশা চক্রবর্ত্তী, ফৌজিয়ার রহমান। ১০ নভেম্বর প্রতিমা বির্সজনের মধ্য দিয়ে কর্মসূচির সমাপ্তি হয়।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন