আজ বুধবার, ২০ জুন ২০১৮ ইং, ০৬ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



হোমিও চিকিৎসক হত্যা : চার জেএমবি সদস্য গ্রেপ্তার

Published on 31 October 2016 | 11: 22 am

কুষ্টিয়ায় জঙ্গি হামলায় নিহত হোমিও চিকিৎসক ডা. সানাউর রহমান হত্যা মামলায় চার জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ (জেএমবি) সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন আজিজুল, সাইফুল, জয়নাল ও সাইজুদ্দিন। চিকিৎসক হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত আরও চার জেএমবি সদস্য পলাতক রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

সোমবার দুপুর ১টায় কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের বরাত দিয়ে খুলনা রেঞ্জ ডিআইজি এস.এম মনিরুজ্জামান এ তথ্য জানিয়েছেন। এদিকে হোমিও চিকিৎসক হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী জেএমবির আঞ্চলিক কমান্ডার কুলু মোল্লা রোববার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে কুষ্টিয়ার ডিবি পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, হোমিও চিকিৎসক ডা. সানাউর রহমান হত্যা ও একই দিনে বোমা বিস্ফোরণে স্কুলছাত্র নাইমুল ইসলাম নিহতের ঘটনায় পুলিশ আজিজুল ও সাইজুদ্দিন নামে দুই জেএমবি সদস্যকে আটক করে।

তাদের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির ভিত্তিতে পুলিশ জেএমবির আঞ্চলিক কমান্ডার কুলু মোল্লা, সাইফুল ও জয়নালকে গ্রেপ্তারে অভিযান চালায়। এদের মধ্যে কুলু মোল্লা ডিবি পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন। বাকিদের গ্রেপ্তার করা হয়।

এ ঘটনায় আরও চার জেএমবি সদস্য পলাতক রয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত ও পলাতকরা গুলশান হামলা ও শোলাকিয়া ঈদগাহ্ ময়দানে হামলার সঙ্গে জড়িত। জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃতরা জানায়, হোমিও চিকিৎসক ডা. সানাউর রহমান ইসলাম ধর্মে বিশ্বাসী নয়। তাই তাকে হত্যা করা হয়েছে। জেএমবির আঞ্চলিক কমান্ডার কুলু মোল্লার নেতৃত্বে আটজনের একটি টিম এ হত্যাকাণ্ড পরিচালনা করেন।

উল্লেখ্য, গত ২০ মে শুক্রবার ডা. সানাউর রহমান সদর উপজেলার বটতৈল এলাকায় তার বাগানবাড়িতে সাধারণ মানুষকে বিনামূল্যে চিকিৎসা দিতে যাওয়ার পথে শিশির মাঠ নামক স্থানে জঙ্গি হামলায় ঘটনাস্থলেই খুন হন। এ সময় গুরুতর জখম হন তার বন্ধু ইবির শিক্ষক সাইফুজ্জামান।

এদিকে হত্যাকাণ্ড সংঘটিত করে পালানোর সময় কবুরহাটে ফেলে যাওয়া বোমা বিস্ফোরিত হয়ে স্কুলছাত্র নাইমুল ইসলাম নিহত হয়।

 


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন