আজ শনিবার, ২৩ জুন ২০১৮ ইং, ০৯ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



ইয়াবা রেখে ব্যবসায়ীকে ফাঁসাতে গিয়ে ধরা পড়ল পুলিশ

Published on 27 October 2016 | 3: 58 am

যশোরের চৌগাছায় এক ব্যবসায়ীকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে জনরোষে পড়েছে এক পুলিশ কর্মকর্তা। সোর্সের মাধ্যমে রাবণ কুমার পাল নামের এক ব্যবসায়ীর প্রতিষ্ঠানে ইয়াবা রাখে পুলিশ। এরপর সোর্স দোকান থেকে বের হলেই পাশেই অবস্থান করা সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) সিরাজুল ইসলাম সেখানে হানা দেন।

এসময় ব্যবসায়ীকে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে আশপাশের ব্যবসায়ীর এগিয়ে আসেন। এক পর্যায়ে তারা সত্য-মিথ্যা যাচাইয়ে প্রতিষ্ঠানের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ পরীক্ষার পরামর্শ দেন।

এরপর পুলিশের ফাঁদের রহস্য বেরিয়ে আসে। বুধবার দুপুর ১টার দিকে চৌগাছা উপজেলা শহরের প্রধান সড়কে অবস্থিত ‘সুপার ইলেক্ট্রিক অ্যান্ড ভ্যারাইটিজ’ নামে একটি দোকানে এ ঘটনা।

এরপরই পুলিশকে গণপিটুনি দেয়া শুরু করেন ব্যবসায়ীরা। পরে ক্ষুব্ধ ব্যবসায়ীরা পুলিশের এ ঘৃণ্যকাজের প্রতিবাদে বিক্ষোভে ফেটে পড়েন। তারা তাৎক্ষণিকভাবে দোকান বন্ধ করে চৌগাছা শহরে মিছিল করেন। চৌগাছা থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, অভিযুক্ত এএসআই সিরাজুল ও কনস্টেবল সরজিতকে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ লাইনে ক্লোজড করা হয়েছে।

একই সঙ্গে  পুলিশের সোর্স নামধারী যুবক চৌগাছার জিওলগাড়ি গ্রামের ফিরোজ শেখের ছেলে আকাশকে আটক করা হয়েছে। তিনি পেশায় একজন রাজমিস্ত্রি। এ ঘটনা মামলা হয়েছে।

চৌগাছা থানার ওসি মশিউর রহমান জানান, উপজেলার জিওলগাড়ি গ্রামের ফিরোজ শেখের ছেলে আকাশের সঙ্গে ব্যবসায়ী রাবণ পালের বিরোধ ছিল। ওই ছেলেটি দোকানে ইয়াবা রেখে পুলিশকে খবর দেয়।

দুই পুলিশ সদস্যই ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই ব্যবসায়ীকে জিজ্ঞাসা করেছে। পরে ভিডিও ফুটেজ পরীক্ষা করে ষড়যন্ত্রের বিষয়টি পরিস্কার হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত যুবক আকাশকে আটক করা হয়েছে। থানায় মামলা হয়েছে।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন