আজ রবিবার, ১৯ আগষ্ট ২০১৮ ইং, ০৪ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



স্বল্প সময়ের মধ্যে দর্শকপ্রিয়তা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন শিল্পি রিফাত : বাবাই প্রেরণার উৎস

Published on 26 October 2016 | 1: 49 pm

জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী চট্টগ্রাম বন্দরের নিরীক্ষা কর্মকর্তা পিতা মোহাম্মদ রফিকুল আলম এফসিএর সাথে রিফাতুল আলম রিফাত 

মোবারক হোসেন ভূইয়া : ইচ্ছা-অনিচ্ছা দমিয়ে রাখতে পারে না প্রতিভা তথা দর্শক শ্রোতাদের চাহিদাকে। গান যার নেশা, শৈশবে যার গানে হাতেখড়ি, তিনি কি চাইলেই গানকে ছেড়ে চলে যেতে পারেন ! ইচ্ছা-অনিচ্ছা কিংবা ব্যস্ততা কোন কিছুই ছাড় দেয়না শিল্পী সত্ত্বাকে। ভক্ত-অনুরক্তদের চাহিদা কিংবা ভালবাসা তাদেরকে বার বার ফিরিয়ে আনে দর্শক হৃদয়ে। তাই শিল্পীরা হয়ে উঠেন ভক্তদের আত্নিক আত্নীয়। ঠিক তেমনি একজন গুনী কন্ঠ শিল্পী রিফাতুল আলম রিফাত। মেধাবী শিক্ষার্থী রিফাত শত ব্যস্ততার মাঝেও ভক্তদের কথা চিন্তা করে দিয়ে যাচ্ছে একের পর এক উপহার যা চিরদিন অম্লান হয়ে থাকবে বাংলা গানের শ্রোতাদের মনের মন্দিরে।

আধুনিক বাংলা গানে সমকালীন সময়ে গায়কী, ঢঙ, সুর, কথা এবং সুমধুর কন্ঠের কারণেই খুব স্বল্প সময়ের মধ্যে দর্শকপ্রিয়তা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন রিফাতুল আলম রিফাত। যদিও গড্ডালিকায় গা ভাসানোর মত গান তিনি কখনো করেননি। বেছে বেছে গান করে যে ভিন্ন ধারা তিনি যুক্ত করেছেন আমাদের সঙ্গীতাঙ্গনে তা বহুকাল সমুজ্জল থাকবে সকলের হৃদয়ে।

গানের হাতেখড়ি বাবার হাতেই। পারিবারিক আবহেই গানের চর্চা। জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী চট্টগ্রাম বন্দরের নিরীক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ রফিকুল আলম এফসিএ  তার পিতা। পিতার সাথে ইতোমধ্যে মিক্সড এ্যালবামে কাজ করার অভিজ্ঞতাও রয়েছে তার। পিতার উৎসাহ, উদ্দীপনা সাহস যুগিয়েছে এতটুকু আসার পিছনে।নিজের প্রতিভা, যোগ্যতা আর বাবার অনুপ্রেরণা এ গুণী শিল্পীর পথ চলার পাথেয়।

২০১২ সালে  আজমীর রিফাতের মিক্সড এ্যালবাম “মেঘলা আকাশ” এ গান গাওয়ার মাধ্যমেই রিফাতুল আলম রিফাতের আনুষ্ঠানিক যাত্রা।ঐ এ্যালবামে তার গাওয়া “অজানা পথ” গানটি দিয়ে তার শুরু। এরপর “ছুয়ে তোমাকে“ এ্যালবামে “রুপকথা” গানটি তাঁকে এনে দেয় আকাশসম জনপ্রিয়তা।শিল্পীর নিজের লিখা ও সুর করা “স্বপ্ন আমার” গানটি এখনো জনপ্রিয়তার তুঙ্গে রয়েছে।

২০১৩ সালে তাদের বাপ বেটার এ্যালবাম “স্বপ্ন আমার ” বাজারে আসে সিডি চয়েজ এর ব্যানারে। এটি হাবিব ওয়াহিদ এর পর বাংলাদেশে ২য় এ্যালবাম। যেখানে পিতা-পুত্র একই সাথে একই এ্যালবামে ৫টি করে গান করেছেন। সেখানে তাদের সাথে ডুয়েট করেছে এ সময়ের জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী পুজা, নওমী, অবীন, খেয়া। এ এ্যলবামে গানের সুরকার ও কম্পোজার ছিলেন বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় শিল্পী ইমরান, বেলাল খান, অয়ন চাকালাদার, আজমীর রিফাত, টি আর রোমান্স।

২০১৬-এর শুরুর দিকে চমক জাগানো আধুনিক গানের শিল্পী রিফাতুল আলম রিফাত করেন “নয়নের পর্দা“ নামে আরেকটি মিউজিক ভিডিও। বহুল প্রচারিত এ ভিডিও ছিল শিল্পী রিফাতের এক অনবদ্য সৃষ্টি। অনুরুপ আইচের রচনায় সিডি চয়েসের ব্যানারে যার সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন ইমরান মাহমুদ। রিফাতের সাথে গানটি ডুয়েট করেছেন নওমি। খুব অল্প সময়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায় ভিডিওটি, যার বর্তমান ইউটিউব ভিউ ৫ লাখের কাছাকাছি।

অ্যালবাম সম্পর্কে রিফাত বলেন, ২০১৫-এর শুরু থেকেই নতুন এ্যালবাম নিয়ে কাজ করে প্রায় এক বছর পর তা রিলিজ করা হয়। প্রত্যেকটা গানের কথা ও সুরে বেশ গুরুত্ব দিয়েছি।দর্শক শ্রোতাদের কথা মাথায় রেখে এ্যালবামটি করেছি যাতে দীর্ঘদিন গানের স্থায়িত্ব থাকে। হঠাৎ করে এসে কদিন পর দর্শরা ভুলে যাবে এ ধরনের গান আমার তেমন একটা পছন্দ নয়। জনপ্রিয়তার পিছনে না দৌঁড়ে আমি সব সময় কোয়ালিটির প্রতি মনোযোগী হই।

অনেকদিন বিরতি দিয়ে “চোখের প্রজাপতি” এ্যালবাম নিয়ে দর্শকদের সামনে হাজির হয়েই পেয়েছেন ভালবাসা, ভাললাগা। দর্শক হৃদয়ে চিরস্থায়ী আসন করে দিয়েছে তার এ ভিন্নধর্মী একক এ্যালবামটি। “ভালোবাসা দিবস“ বাজারে এসেই এ্যালবামটি কেঁড়ে নিয়েছে দর্শকের প্রাণ জুড়ানো গানগুলো। সিডি চয়েস এর ব্যানারে এ অ্যালবামটি বাজারে এসেছিল। ভালোবাসা দিবসকে সামনে রেখে রিলিজ হওয়া এ এ্যালবামে গান ছিল ১১টি। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য : স্বপ্ন আমার-২, ভালোবাসতে দাও, চোখের প্রজাপতি, আমি হব চাঁদ, মন তো মানে না। গানগুলো লিখেছিলেন আবদুল কাদের মুন্না, গিয়াস সানি, সাযযাদ রাফি, রিফাতুল আলম নিজেই। সংগীত করেছেন অয়ন চাকলাদার, আমির নেওয়াজ বাবা, রাফি, আভ্রা আল সাহির, নাসিফ অনি।

ইস্ট ডেল্টা ইউনিভাসির্টির বিবিএ’র ছাত্র রিফাতুল আলম রিফাত তার সর্বশেষ একক এ্যালবাম “চোখের প্রজাপতি” প্রসঙ্গে বলেন, অনেক সময় ও মেধা দিয়ে গানগুলো করেছি। সব ধরনের শ্রোতার চাহিদার কথা মাথায় রেখে গানগুলো করেছি। আশা করি শ্রোতারা হতাশ হবেন না। গান নিয়ে আমি দর্শকদের মাঝে অনন্তকাল বেঁচে থাকতে চাই। সস্তা বা ক্ষনিক জনপ্রিয়তা নয়, চাই স্থায়ী অাসন। এ এ্যালবামে সফট রোমান্টিক, টেকনো বিট, বাংলা ফিল্মি স্টাইল, অ্যাকুয়াস্টিক স্লো ধাঁচের গান রয়েছে এ এ্যালবামে। গ্রামীণফোন গ্রাহকরা ‘জিপি মিউজিক’ থেকে পুরো এ্যালবামটি শুনতে পাবেন। এ ছাড়া কিছুদিনের মধ্যে গানগুলো আমার ইউটিউব চ্যানেলে শোনা যাবে।

নতুন আপডেট জানতে সবাই আমার ফ্যান পেইজে লাইক দিয়ে সাথে থাকবেন। ফ্যান পেইজের নাম- Rifatul alam Rifat. লিঙ্ক: https://www.facebook.com/rifatulalamfanpage আমার নিউ মিউজিক ভিডিও এবং গান শুনতে সবাই ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন। চ্যানেলের নাম: Rifatul alam Rifat. লিঙ্ক: https://www.youtube.com/rifatmusicbd.

রিফাতুল আলম রিফাতের বাবা সন্দ্বীপের গাছুয়া নিবাসী রফিকুল আলম এফসিএ একজন জনপ্রিয় ও প্রতিথযশা সঙ্গীত শিল্পী। চট্টগ্রাম বন্দরের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বের পাশাপাশি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ানো ও প্রশিক্ষণ প্রদান করেন নিয়মিত। তাই সঙ্গীত চর্চায় তেমন আগের মত সময় দিতে না পারলেও ছেলের এ অর্জন তাঁকে মুগ্ধ করেছে।গুণী ও রুচিশীল এ শিল্পীর রয়েছে আলাদা সু্খ্যাতি। তিনি দেশে ও দেশের বাইরে পশ্চিম বঙ্গের অনেক শিল্পীর সাথেও কাজ করেছেন। * সিটিজি সংবাদের সৌজন্যে


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন