আজ বুধবার, ২০ জুন ২০১৮ ইং, ০৬ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



নিয়ম মেনেই গাছ কাটা হচ্ছে : গণপূর্ত অধিদপ্তর ।। জাম্বুরি মাঠে গাছ কাটা নিয়ে স্থানীয়দের অভিযোগ

Published on 26 October 2016 | 3: 28 am

নগরীর আগ্রাবাদ জাম্বুরি মাঠের সাড়ে আট একর জায়গায় ২০ কোটি টাকায় একটি নান্দনিক পার্ক গড়ে তোলার ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়েছিল গত ১৫ জুলাই। মাঠটির নিয়ন্ত্রক সংস্থা ‘গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনের সময় বলেছিলেন, ‘এখানে প্রচুর গাছ লাগানো হবে’। অথচ এখন দেখা যাচ্ছে উল্টো চিত্র। পার্কের নির্মাণ কাজ করার জন্য গত কয়েকদিন ধরেই কাটা হচ্ছে বেশ কয়েকটি রেইনট্রিসহ বিভিন্ন ধরনের গাছ। স্থানীয়দের দাবি, যেসব রেইন ট্রি কাটা হচ্ছে তার কোন কোনটির বয়স একযুগেরও বেশি। স্থানীয় লোকজন বলছেন, বিদ্যমান গাছগুলো রেখেই পার্কের কাজ করা সম্ভব। যদিও গণপূর্ত বিভাগের দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা দাবি করেছেন, নিয়ম মেনেই গাছগুলো কাটা হচ্ছে এবং যে পরিমাণ গাছ কাটা হচ্ছে তার চেয়েও বেশি পরিমাণ গাছ লাগানো হবে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে পার্কটির প্রকল্প পরিচালক ও গণপূর্ত অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী আহমেদ আবদুল্লাহ নূর দৈনিক আজাদীকে বলেন, ‘গাছ কাটা ছাড়া প্রকল্পের কাজ এগিয়ে নেব কিভাবে। তবে যথাযথ প্রক্রিয়া অবলম্বন করেই কিন্তু গাছগুলো কাটা হচ্ছে। এই ক্ষেত্রে বন বিভাগ থেকে অনুমতি নিয়েছি এবং টেন্ডারও আহবান করেছি। কি পরিমাণ গাছ কাটা হবে তার একটি ভলিউমও দিয়েছে বন বিভাগ। নিয়মকানুন মেনেই কাজের সুবিধার্থে আমরা গাছগুলো কাটছি এবং যে গাছগুলো না কাটলে কাজ করা সম্ভব হচ্ছে না সেগুলোই কেবল কাটছি। আসলে যে পরিমাণ গাছ এখন কাটা হচ্ছে তার চেয়ে আরো কয়েকগুণ বেশি গাছ লাগানো হবে। আমাদের পরিকল্পনা হচ্ছে পার্কটিকে রমনার আদলে গড়ে তোলা এবং এখানে প্রচুর গাছ থাকবে। বর্তমানে যেসব গাছ রয়েছে তার বেশিরভাগই রেইন ট্রি। মন্ত্রী মহোদয়ের ইচ্ছে প্রচুর ফলফলাদির গাছ থাকবে। বর্তমানে পাকটিতে কি পরিমাণ গাছ আছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ১৬৭টি গাছ আছে এবং নতুন করে দুই হাজারের উপর গাছ লাগানো হবে।

 


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন