আজ রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮ ইং, ১০ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



সিটিভির ভারপ্রাপ্ত জি এম অপসারণ না হওয়া পর্যন্ত অনুষ্ঠান বর্জনের ঘোষণা

Published on 02 October 2016 | 6: 50 pm

সোনালী নিউজ প্রতিবেদক :: সিটিভির ভারপ্রাপ্ত জি এম  মনোজ সেন গুপ্ত অপসারণ না হওয়া পর্যন্ত  অনুষ্ঠান বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে সম্মিলিত শিল্পী সমাজ চট্টগ্রাম ।  আজ সকালে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র আলহাজ্ব এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীকে স্মারকলিপি প্রদান করে এ সিদ্ধান্তের কথা জানায় সম্মিলিত শিল্পী সমাজের নেতৃবৃন্দ । এ সময় শিল্পীরা অভিযোগ করে বলেন,  ৮ বছর আগে দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত হয়ে বিটিভি থেকে বরখাস্তকৃত প্রযোজক মনোজ সেন গুপ্ত ৫ মাস আগে সিটিভিতে চুক্তিভিত্তিক অনুষ্ঠান অধ্যক্ষ হিসেবে যোগ দান করার পর থেকে সিটিভিকে মূলত দুর্নীতির স্বর্গরাজ্যে পরিণত করেছে। বিটিভির তালিকাভুক্ত অনেক সঙ্গীত পরিচালক ও শিল্পিকে অনুষ্ঠান প্রদান করা থেকে বিরত রেখে অনুষ্ঠান বাণিজ্য শুরু করে । যার ফলে যোগ্য ও প্রতিভাবান অনুষ্ঠান পাচ্ছেনা । বর্তমানে সর্বস্তরের শিল্পীদের বিশাল অংশ সিটিভির সকল অনুষ্ঠান থেকে নিজেদেরকে বিরত রাখার ঘোষণা দেন।

এ সময় মহানগর আওয়ামীলীগের প্রবীণ নেতা আলহাজ্ব এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী শিল্পীদের সাথে একাত্ম ঘোষণা করে বলেন, শিল্পীদের ন্যায্য অধিকার ক্ষুণ্ণ করে দুর্নীতিবাজ কোন কর্মকর্তা সিটিভিতে থাকতে পারবেনা। তিনি সকল শিল্পিকে বিভেদ ভুলে একসাথে সিটিভির উন্নয়নে কাজ করার আহ্বান জানান। তিনি আরও বলেন সিটিভিকে ৪ ঘণ্টা স্যাটেলাইটে নেয়া চট্টগ্রামবাসীর সাথে তামাশা করার শামিল। সিটিভিকে অবিলম্বে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ৬ ঘণ্টা স্যাটেলাইট ও টেরিস্টরিয়্যাল সম্প্রচার করতে হবে । তিনি শিল্পী সমাজের সাথে একমত পোষণ করে বলে বলেন, শিল্পী সমাজের যে  কোন দাবী আদায়ে আমার সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, চিত্রনায়ক পঙ্কজ বৈদ্য সুজন, সঙ্গীত পরিচালক আলমগীর আলাউদ্দিন, সঙ্গীত পরিচালক ফরিদ বঙ্গবাসী, সঙ্গীত পরিচালকদীপেন চৌধুরী, সঙ্গীত পরিচালক শংকর দে, গীতিকার ও লেখক আবছার উদ্দিন অলি , সঙ্গীত পরিচালক ফজলুল কবির চৌধুরী, ওস্তাদ হাসান ইসমাইল, সঙ্গীত পরিচালক এম এম নজরুল ইসলাম তিতাস, সঙ্গীত পরিচালক দিদারুল ইসলাম, শিল্পী বোরহান উদ্দিন চৌধুরী টিপু, চলচ্চিত্র নির্মাতা নুরুল ইসলাম নুরু, শিল্পী ও সুরকার  মুন্না ফারুক, শিল্পী ও সঙ্গীত পরিচালক ইফতেখার সাদী, শিল্পী আসাদুর রহমান, শিল্পী এম কে বাশার প্রমুখ ।
শিল্পী সমাজের নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করে বলেন, মনোজ সেন গুপ্তের মতো দুর্নীতিবাজ ব্যাক্তিকে দিয়ে সিটিভি পরিচালিত হওয়া শিল্পীদের জন্যে অত্যন্ত অসম্মানের, যাকে ১৯৯৬ সালে নারী কেলেঙ্কারি ও দুর্নীতির অভিযোগে শাস্তিমূলক বদলি করে পুলিশ পাহারায় ঢাকায় পাঠানো হয় ।
শিল্পীরা বলেন এই অযোগ্য ও দুর্নীতিবাজ মনোজ সেন কে অপসারণ করে সিটিভির জি  এম এর শূন্য পদে যোগ্য কর্মকর্তা নিয়োগ করে সিটিভিকে দুর্নীতিমুক্ত করার জোরদাবী জানান। অন্যথায় অচিরেই বৃহত্তর আন্দোলনের করমিসুচি ঘোষণা করা হবে ।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন