আজ শনিবার, ২৩ জুন ২০১৮ ইং, ০৯ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



২ দিন শিকলে বেঁধে কিশোরকে নির্যাতন

Published on 26 September 2016 | 3: 24 am

মাদারীপুরের শিবচরে মোবাইল চুরির অভিযোগে এক কিশোরকে ২ দিন ধরে শিকল দিয়ে বেঁধে রেখে অমানবিক নির্যাতন করার অভিযোগ উঠেছে। শিবচর থানা পুলিশ কিশোরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে। এ ঘটনায় নির্যাতনকারী কামরুল বেপারীকে রোববার রাতে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মোবাইল চুরির অভিযোগে মেহেদী হাসান (১৫) নামের এক কিশোরকে ২ দিন ঘরে আটকে রেখে নির্যাতন করে শিবচর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যন দেলোয়ার বেপারীর ভাই কামরুল বেপারী। শিবচর উপজেলার কাদিরপুর ইউনিয়নের রহম আলী বেপারী কান্দি গ্রামে।

স্থানীয়ভাবে সংবাদ পেয়ে শিবচর থানার পুলিশ রোববার বিকেল সাড়ে ৫টায় হাতে-পায়ে ও গলায় শিকল দেওয়া অবস্থায় মেহেদীকে উদ্ধার করে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে।

শিবচর থানার ওসি মো. জাকির হোসেন জানান, নির্যাতিত কিশোরটি কেবল টিভি অপারেটরের কাজ করে। ঈদের আগে এই কিশোরটি কামরুল বেপারীর ঘরে কেবল মেরামতের কাজ করে গিয়েছিল। তখন কামরুলের দুটি মোবাইল সেট খোয়া যায়। এ ঘটনার জের ধরে শনিবার দুপুরে কামরুল বেপারী ডিশ লাইনের কাজ করার কথা বলে কিশোরটিকে বাড়িতে ডেকে আনে। মোবাইল চুরি করার অভিযোগ তুলে মারধর করে। এরপর তাকে একটি ঘরে হাত-পায়ে ও গলায় লোহার শিকল বেঁধে আটকে রেখে ২ দিন ধরে শারীরিক নির্যাতন চালানো হয়।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন