আজ সোমবার, ১৬ জুলাই ২০১৮ ইং, ০১ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



সন্দ্বীপের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পে ৪৮ কোটি টাকার প্যাকেজ প্রকল্প একনেকে অনুমোদন

Published on 07 September 2016 | 11: 54 am

রহিম মোহম্মদ, সন্দ্বীপ

জলাবদ্ধতা দূরীকরণে খাল খনন ও স্লুইজগেট নির্মাণ এবং জলোচ্ছ্বাসের ক্ষয়ক্ষতি থেকে সন্দ্বীপকে রক্ষা করতে বেড়িবাঁধের উচ্চতা বৃদ্ধিসহ এর সংস্কারে একটি প্যাকেজ পরিকল্পনা গ্রহন করেছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। পরিকল্পনা ব্যয়ে প্রায় ৪৮ কোটি টাকার বরাদ্দটি ইতোমধ্যে একনেকে অনুমোদন লাভ করেছে। প্রাক্কলন চূড়ান্ত করতে বর্তমানে সন্দ্বীপে ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ এলাকায় সার্ভে কাজ চলছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, আগামী দু’মাসের মধ্যে প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজ শুরু হবে।

জানা গেছে, পানি নিষ্কাশনে খালখনন ও সুইস গেইট নির্মান সহ বেড়িবাঁধ রক্ষণাবেক্ষণের জন্য পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের বরাদ্দকৃত ৪৮ কোটি টাকা ব্যয়ে যে সমস্ত পরিকল্পনাগুলো গ্রহন করা হয়েছে তা হচ্ছেপ্রায় ২৭ কি.মি. বেড়িবাঁধের উচ্চতা বৃদ্ধি করা।

এ ছাড়া হরিশপুরের ২৭০০মি:, সারিকাইতের ১৬০০ মি:, মগধরার ২০০০ মি:, মুছাপুরের ১১০০ মি:, মাইটভাঙ্গার ১১০০ মি: ও কালাপানিয়ার ১৬০০ মি: বেড়ীবাঁধ মেরামত করা হবে। অপরদিকে মগধরা ছোয়াখালী খালে ১টি, কালাপানিয়া খালে ১টি, সন্তোষপুর খালে ১টি সহ আমানউল্যা সুতাছড়া খালে ১টি ুইস গেইট নির্মাণ করা হবে।

এ প্রকল্পের অধীনে যে সমস্ত খাল খননের পরিকল্পনা রয়েছে সেগুলো হচ্ছেছোয়াখালী (১৫০০মি.). সাউতাল খাল (৩২২০মি.), গুপ্তছড়া খাল (৩০০০মি.), ধোপার খাল (২৪২০ মি.), মাইটভাঙ্গা খাল (৩০০০মি.), হাদী খাল (৩০০০মি.), কেঞ্জাতলী খাল (৩০০০মি.), গুলাডেবী খাল (৩০০০মি.), সন্তোষপুর খাল (৩০০০মি.), বাউরিয়া খাল (৩০০০মি.), কুচিয়ামোড়া খাল (৩০০০মি.), কাটাখালী খাল (৩০০০মি.)

সন্দ্বীপের চর্তুদিকে পোল্ডার নং ৭২ এর অধীনে প্রায় ৬০ কি.মি বেড়িবাঁধের বিভিন্ন স্পটে নাজুক অবস্থা বিরাজ করছে। দীর্ঘদিন ধরে নদী ভাঙন ছাড়াও গবাদি পশু চলাচল এবং জোয়ারের প্রবল স্রোতে বাঁধের বেশ কিছু অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হলেও এটি রক্ষণাবেক্ষণে কোন উদ্যোগ নেয়া হয়নি। বেড়িবাঁধের বিভিন্ন অংশে ত্রুটি থাকায় জোয়ার ভাটার তান্ডবে উপকূলীয় এলাকা প্লাবিত হয়।

সম্প্রতি রোয়ানুর তান্ডবে বাঁধের কয়েকটি স্থান ছিঁড়ে নতুন করে আতংক সৃষ্টি করেছে ঝড়জলোচ্ছ্বাস ও ভাঙন কবলিত দ্বীপের মানুষের মাঝে। সাগরের দুর্যোগে থেকে রক্ষা পেতে বেড়িবাঁধ সংস্কার এবং কয়েক বছর ধরে সৃষ্ট জলাবদ্ধতা সংকট নিরসনে সাগর পাড়ের স্থানীয় বাসিন্দারা দীর্ঘদিন ধরে দাবি জানিয়ে আসছে। সন্দ্বীপ আসন থেকে নির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য স্পর্শকাতর এ সমস্যাটি সমাধানকল্পে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে অবহিত করে একটি দাবি নামা দাখিল করে। পরে মন্ত্রনালয় থেকে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের একটি প্রকল্প তৈরী করে পাঠানোর নির্দেশ প্রদান করলে বোর্ড ৩৭ কোটি টাকার একটি প্যাকেজ পরিকল্পনা পাঠায়।

এ ব্যাপারে সংসদ সদস্য মাহফুজুর রহমান মিতা জানান, সন্দ্বীপের বেড়িবাঁধের দীর্ঘদিনের বিরাজমান সমস্যা নিরসনের স্বার্থে বোর্ড প্রস্তাবিত ৩৭ কোটি টাকার প্রকল্পটি বৃদ্ধি করে ৪৮ কোটি টাকায় উন্নীত করে অনুমোদন করা হয়।

তিনি আরো জানানখাল খনন সহ নতুন স্লুইস গেইটগুলো নির্মাণ করা হলে অতি জোয়ার ভাটা বা ভারী বৃষ্টিপাতের ফলে যে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হ’ত সে সমস্যা আর থাকবে না। কৃষকদের স্বাভাবিক চাষাবাদ ও মৎস্য প্রকল্পগুলো ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পাবে।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন