আজ বুধবার, ২৩ মে ২০১৮ ইং, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



পেনশনের ১৬ কোটি টাকা আত্মসাত, আটক ২

Published on 09 August 2016 | 3: 43 am

কুমিল্লায় সরকারি কোষাগার থেকে ১৬ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দুই উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তাকে আটক করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।
সোমবার দুপুরে জেলার পৃথক দুটি স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়।

দুদকের কুমিল্লা জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের উপ-পরিচালক আবুল কালাম আজাদের নেতৃত্বে একটি তদন্ত দল তাদের আটক করে। আটকরা হলেন- কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা মোখলেছুর রহমান ও জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলার হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা বিল্লাল হোসেন।

মোখলেছুর রহমান নোয়াখালী জেলার চাটখিল উপজেলার সাতবাড়ীয়া গ্রামের মৃত আবুল বাশারের ছেলে। বিল্লাল হোসেনের বাড়ি চাঁদপুর জেলার শাহরাস্তি উপজেলার রাজাপুরা গ্রামে। তার বাবার নাম এরশাদ হোসেন পাটোয়ারী।

জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার হিসাব রক্ষণ কার্যালয়ে চাকরিরত অবস্থায় জেলা হিসাবরক্ষণ কার্যালয় ও সোনালী ব্যাংকের একদল অসাধু কর্মকর্তা মিলে সরকারি পেনশন ভোগীদের হিসাব থেকে ১৬ কোটি ৬ লাখ ২ হাজার ৯৬২ টাকা আত্মসাত করেন।

পরে ওই চক্রের সদস্যরা ব্রাহ্মণবাড়িয়া হিসাবরক্ষণ কার্যালয় থেকে পদোন্নতি নিয়ে বিভিন্নস্থানে বদলি হয়ে যান। এ নিয়ে বেশ তোলপাড় সৃষ্টি হলে অনুসন্ধান চালায় দুদক।
ওই অসাধু চক্রের সদস্যদের চিহ্নিত করে ২০১৫ সালের ১২ অক্টোবর দুদকের কুমিল্লা অঞ্চলের সহকারী পরিচালক নুরুল হুদা বাদী হয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

এ মামলায় সোনালী ব্যংকের কর্মকর্তাসহ ২২ জনকে আসামি করা হয়। এদের মধ্যে মোখলেছুর রহমানকে বুড়িচং সদর থেকে এবং বিল্লাল হোসেনকে দক্ষিণ উপজেলা থেকে সোমবার আটক করা হয়।

কুমিল্লাস্থ দুদক সমন্বিত কার্যালয়ের উপ-পরিচালক আবুল কালাম আজাদ বলেন, আটক দুজনকে দুদকের সমন্বিত কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। মঙ্গলবার তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হবে।


Advertisement

আরও পড়ুন