আজ বৃহঃপতিবার, ১৬ আগষ্ট ২০১৮ ইং, ০১ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



কবি বেলাল মোহাম্মদের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী স্বরনে– “আমরা পায়নি ন্যায্য হিস্যা”

Published on 30 July 2016 | 6: 55 pm

ইঞ্জিনিয়ার আবু তাহের রায়হান :::::::

অন্যদের স্বরনের বিপরীতে আমাদের স্বরন লেখাটি কিছুটা বেদনা ও হতাসার। কারন স্বাধীন বাংলা বেতারের সুফলের ন্যায্য হিস্য্যা আমরা সন্দ্বীপবাসী পাইনি। স্বাধীন বিপ্লবী বেতার কেন্দ্র যার জন্মস্থান এই চট্টগ্রামের কালুর ঘাট বেতার। ঝুকিপুর্ন এ কাজের দায়িত্ব নিয়েছিলেন প্রায় ১০/১১ জন যন্ত্র ও শব্দ সৈনিক। তার মধ্যে আমাদের সন্দ্বীপেরই কবি বেলাল মোহাম্মদ এবং আবুল কাশেম সন্দ্বীপি দুজন ই ছিলেন শব্দ সৈনিক । সেই হিসাবে সারা বাংলাদেশে এই বিপ্লবী কেন্দ্রটির প্রায় পাচ ভাগের এক ভাগের গর্বিত অংশিদার আমরা সন্দ্বীপবাসী! কিন্তু সেই শব্দ সৈনিক রা কি পেল তাদের দ্বীপবা কি পেল ?
স্বাধীনতা পরবর্তি বেলাল মোহাম্মদ বেতারের নিয়মিত চাকুরী পান,অনেক কাঠ খড় পুড়িয়ে চাকুরীর শেষের দিকে বেতারের আঞ্চলিক পরিচালকের পদে উন্নীত হয়ে রাজশাহী বেতার কেন্দ্র হতে অবসরে যান।
তিনজন ছিলেন প্রকৌশলী তারা বেতারের প্রধান প্রকৌশলী পর্যন্ত হয়েছিলেন কিন্তু বেলাল মোহাম্মদ আমাদের মত একটি আঞ্চলিক কেন্দ্র প্রধানের সর্বোচ্ছ পদ প্রাপ্তী জুটে মাত্র।
যেখানে মুক্তিযুদ্ধ সংশ্লিষ্টতায় আবার কেউ কেউ মুক্তিযুদ্ধের ছুতা নাতা স্পর্শ করেও কৌশলে দেশের বড় বড় পদে পুরষ্কৃত হন। কিন্তু আমাদের দ্বীপের দুই শব্দ সৈনিক আর্থিক বা প্রাতিষ্ঠানিকভাবে তেমন মর্যাদা পাননি স্বাধীনতার পদক ছাড়া। এটি তাদের জন্যে যেমন দ্বীপবাসীর জন্যেও হতাসার এবং বেদনার।
তাই উনার মৃত্যুবার্ষিকীতে এ প্রজন্ম দ্বীপবাসীদের আশা উদ্দীপনা সঞ্চাচারিত হোক তাদের গর্বিত জন্মস্থান সন্দীপের প্রতি আর নয় অবহেলা আমরা চাই আমাদের ন্যায্য হিস্যা ।

ইঞ্জিনিয়ার আবু তাহের রায়হান, সভাপতি- স স ক প।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন