আজ সোমবার, ২০ আগষ্ট ২০১৮ ইং, ০৫ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



দেশকে সিকিম রাজ্যে পরিণত করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে : হান্নান শাহ

Published on 12 July 2016 | 3: 05 am

বর্তমান পরিস্থিতিতে বন্ধু রাষ্ট্র হিসেবে জনগণের পাশে থাকতে ভারত সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আ স ম হান্নান শাহ। সোমবার দুপুরে রাজধানীর ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন মিলনায়তনেজাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা) আয়োজিত আলোচনায় বিএনপি নেতা এ আহ্বান জানান।

হান্নানশাহ বলেন, বাংলাদেশকে ভারতের সিকিমের মতো রাজ্যে পরিণত করার রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশকে সিকিমের মতো হজম করা যাবে না।

হান্নান শাহ অভিযোগ করেন, বাংলাদেশের বর্তমান সরকার ভারতের ইশারা ছাড়া কোনো কিছু করে না। কিন্তু দিল্লির ছত্রচ্ছায়ায় থেকে আজীবন দেশ শাসন করা যাবে না।

বিএনপির এই নেতা দাবি করেন, বিএনপির শাসনামলে নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গিগোষ্ঠী জেএমবিকে নির্মূল করা হয়েছিল। কিন্তু এই আওয়ামী লীগের আমলে তারা আবার মাথাচাড়া দিয়েছে।

হান্নান শাহ বলেন, ‘ভারত আমাদের বন্ধুত্ব দাবি করে। এই সরকারও বলে তারা বন্ধু। আমিও বলব, আপনারা বন্ধু ছিলেন। মধ্যখানে রাস্তা হারিয়ে ফেলেছেন। আবার বন্ধুত্বের হাত সম্প্রসারণ করুন। জনগণের অধিকার আদায়ের জন্য আপনারা বাংলাদেশের পাশে দাঁড়ান। এই কিছু সংখ্যক দালালের পেছনে দাঁড়াবেন না।’

জুমার নামাজের খুতবা পর্যবেক্ষণের সরকারি সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে জাগপার সভাপতি শফিউল আলম প্রধান বলেন, মসজিদের ইমাম কী বয়ান করবেন, এখন সরকার তা ঠিক করে দেবে।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, সরকার জঙ্গিবাদ দমন করার বিষয়ে আন্তরিক কি না, নাকি তারাই জঙ্গিবাদের মদদ দিচ্ছে, তা নিয়ে সংশয় আছে। কারণ, দেশের এই পরিস্থিতিতেও সরকার জাতীয় ঐক্যের আহ্বানে সাড়া না দিয়ে দোষারোপের রাজনীতি করছে।

অনুষ্ঠানে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ রিজভী জঙ্গি হামলার ঘটনা নিয়ে বলেন, ‘আজকের এই যে বিভীষিকা, এই বিভীষিকাকে মোকাবিলা করা কতটুকু সম্ভব হবে সেটা একটা বিরাট সন্দেহ দেখা যাচ্ছে। সরকারের বক্তব্য ও আচরণের মধ্য দিয়েই জিনিসগুলো ফুটে উঠছে। আসলে তারা এ বিষয়টিতে আন্তরিক কি না, তারা এটা চান কি না, নাকি তাদেরই মদদে ঘটনাগুলো হচ্ছে।’


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন