আজ রবিবার, ২৭ মে ২০১৮ ইং, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



আবিরকে নিয়ে সতর্ক থাকা উচিৎ ছিল: ভাই

Published on 10 July 2016 | 4: 07 am

শোলাকিয়ায় ঈদের জামাতের কাছে জঙ্গি আক্রমণের সময় পুলিশের গুলিতে নিহত সন্দেহভাজন হামলাকারী আবির রহমানের ভাই আশিকুর রহমান বলেছেন, অনলাইনে আবির কি করছে সে সম্পর্কে তারা জানতেন না এবং এখন তারা বুঝতে পারছেন যে তাদের আরো সতর্ক হওয়া উচিৎ ছিল।

তিনি বলেন, আবির রহমান গত চার মাস ধরে নিখোঁজ ছিলেন। কিন্তু গুলশানে হোলি আর্টিজানে আক্রমণের পর যখন জানা যায় যে হামলাকারীরা সবাই ঢাকার বিভিন্ন সচ্ছল পরিবার থেকে নিখোঁজ হয়ে যাওয়া তরুণ।

আশিকুর রহমান বলেন, এদের মধ্যে অনেক পরিবার থেকেই এরকম তরুণ ছেলেদের নিখোঁজ হবার ঘটনা ঘটেছে- তখনই তারা ব্যাপারটা পুলিশকে জানানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

আবিরের ভাই আরও বলেন, আবির ধার্মিক ছিল, নিয়মিত নামাজ পড়তো, দাড়ি রেখেছিল। কিন্তু অতিমাত্রায় ধর্মপরায়ণতা তার মধ্যে ছিল না, এবং এটা অস্বাভাবিক কিছু বলে তাদের মনে হয়নি।

বিবিসি বাংলায় দেয়া এক সাক্ষাৎকারে আশিকুর রহমান বলেন, তবে এখনকার পরিস্থিতির আলোকে তার মনে হচ্ছে যে একটা কিছু আঁচ করা উচিৎ ছিল।

তিনি বলেন, ‘ফেসবুকে আবির কি করছে, কাদের সঙ্গে মিশছে – সে সম্পর্কেও আমরা কিছু জানতাম না। কিন্তু এখন বুঝতে পারছি অনলাইনে তার ভাই কি করছে সে সম্পর্কে আরো সতর্ক হওয়া উচিত ছিল।’

কেন চার মাস আগে আবির বাড়ি ছেড়ে হঠাৎ করে নিখোঁজ হয়ে যায় – তা সুনির্দিষ্টভাবে বলতে পারছেন না পরিবারের কেউই। তারা এ নিয়ে পুলিশের কাছেও যাননি। তবে গুলশানের ঘটনার পর ব্যাপারটা পুলিশকে জানানো হয়অ

থানায় জিডি করার দুদিন পার না হতেই শোলাকিয়ার আক্রমণের ঘটনায় আবিরের নিহত হওয়ার খবর পান তারা। এ-লেভেলের পরই অস্ট্রেলিয়া যাবার ইচ্ছে ছিল আবিরের। কিন্তু তা সম্ভব না হওয়ায় মনক্ষুণ্ণ হয়েছিল। পরে সে ঠিক করে যে নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিবিএ করার পরই সে যাবে।

কিন্তু চার মাস আগে হঠাৎ করে নিখোঁজ হয়ে যায় আবির। তার ঘরের বারান্দায় ফুলের গাছ ছিল, খাঁচায় পোষা পাখি ছিল। আশিকুর রহমান বলেন, যাবার আগে আবির পাখিগুলো ছেড়ে দিয়ে গেছে।


Advertisement

আরও পড়ুন