অগ্রণী ব্যাংকের এমডিকে অপসারণ

ক্ষমতার অপব্যবহার করে ৭৯২ কোটি টাকা ঋণ বিতরণ করায় অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সৈয়দ আবদুল হামিদকে অপসারণ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ নির্দেশ দেয়া হয়। অপসারণের বিষয়টি অবহিত করে বাংলাদেশ ব্যাংকের এক মহাব্যবস্থাপক স্বাক্ষরিত চিঠি অর্থ মন্ত্রণালয়ের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব ও অগ্রণী ব্যাংকের চেয়ারম্যানকে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে গতকাল বুধবার বিকালে এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের স্থায়ী কমিটির শুনানি শেষে অপসারণের সুপারিশ অনুমোদন করেন  গভর্নর। গভর্নরের অনুমোদনের পর আবদুল হামিদকে চিঠি দিয়ে আনুষ্ঠানিক অপসারণের বিষয়টি জানানো হয়।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্যানুযায়ী, তানাকা গ্রুপের ১২০ কোটি টাকা, মুহিব স্টিল কোম্পানির ৯১ কোটি টাকা, মারহাবা টেক্সটাইলের ৪৫ কোটি টাকা, মাহিদ অ্যাপারেলে ১০৯ কোটি টাকা, এআরটি শিপ ব্রেকিং লিমিটেডের ৫০ কোটি টাকা এবং মিউচ্যুয়াল কনসার্ন কর্পোরেশন লিমিটেডের ২০০ কোটি টাকার খেলাপি ঋণের হিসাবকে সম্পূর্ণ আইন বহির্ভূতভাবে ঋণ পুনঃ তফসিল করেছেন আবদুল হামিদ।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্র বলছে, এসব প্রতিষ্ঠানকে ঋণ প্রদানের ক্ষেত্রে প্রচলিত আইন ও বিধি-বিধান কোনো কিছুই মানেননি তিনি। এমনকি ব্যাংকটির বোর্ড সদস্যদের অনুমোদন নেয়া বাধ্যতামূলক হলেও তা মানা হয়নি।

Mahabubur Rahman Mahabubur Rahman

Leave a Reply

Top
%d bloggers like this:
Web Design BangladeshBangladesh Online Market