আজ শনিবার, ২৬ মে ২০১৮ ইং, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



সাহিত্য নিয়েও এখন হিংস্র মানসিকতা ও বিদ্বেষের আগুন, দায়ী হাতেগোনা কয়েকটি পত্রিকা

Published on 30 June 2016 | 6: 11 am

মাহমুদুল হাসান নিজামী
 
বর্তমান নামেই আমি ১৯৯০ সালের আগে, পরে সেই জনপ্রিয় বাংলার বানী সহ জাতীয় দৈনিকে ডাক যুগে লেখা পাঠাতাম চট্টগ্রাম থেকে । তখন প্রায় সকল জাতীয় দৈনিকে আমার কবিতা যত্ন সহকারে ছাপা হতো । তখন ডান বাম কোন ধারার পত্রিকাই নাম নিয়ে এই হীনমন্যতা কেউ দেখায়নি ।
 
তখন প্রায় পাতা সম্পাদক ছিলেন প্রবীন অভ্জ্ঞিতা পূর্ন্ গুণী ব্যক্তিত্বরা । আমার নামের শেষ অংশ নিজামী, নিজামী শব্দটি জামাত নেতার নামেরই শেষ অংশ, এই অপরাধে আমার লেখা কিছু পত্রিকা ছাপেনা, কোন কোন পত্রিকায় দু একটি কবিতা ছাপার পর হাউজের ছাপ আছে বলে আমার ৩০ বছরের লেখক নামের শেষ অংশটি বদলানো প্রস্তাব দেয় এবং বলে-”ভাই আপনি অনেক বড় মাপের লেখক আপনার লেখা গুলো ছাপতে চাই শুধু নামের শেষ অংশটার জন্য হাউজের ছাপ দয়া করে নামের শেষ অংশটা বদলান” আমার বাড়ী চট্টগ্রাম, জামাত নেতা নিজামী’র সাথে আত্বীয়তাতো দুরের কথা উনার রাজনৈতিক দলের সাথেও আমার সম্পর্ক নাই ।
 
আমি মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের একটি দলেরর একজন সমর্থক মাত্র । সেটি আমার ব্যক্তিগত অধিকার । কিন্তু আমার নামের শেষ শব্দটা জামাত নেতার নামের সাথে মিল থাকার কারনে আমি একজন সার্বজনীন চেতনার লেখক হয়েও হিংস্র রাজনৈতিক সামপ্রদায়িকতার শিকার । যে সব পত্রিকা আমার নামের শেষ অংশের অপরাধের জন্য লেখা ছাপতে অক্ষমতা দেখায় অর্থাৎ জামাত নেতা নিজামী’’র নামের শেষ শব্দ মিলের কারনে আমার প্রতি বিদ্বেষ সেসব পত্রিকার মধ্যে অন্যতম প্রথম আলো পত্রিকার এক বিভগীয় সম্পাদককে বলেছিলাম ভাই আমার নামের শেষাংশ জামাত নেতার নামের সাথে মিল থাকা যদি অপরাধ হয় -তাহলে আপনার সম্পাদক মতিউর রহমান ভাইয়ের নামেরতো দুটি শব্দই জামাত নেতা নিজামী’র নামের সাথে মিল। তাহলে মতি ভাইকে কি প্রথম আলো সম্পাদক থেকে বাদ দিবেন ?
 
যে মীর জাফরের কারনে ভারত বর্ষ ও বাংলার স্বাধীনতা হারিয়ে ছিল দু”শ বছর সে মীর জাফরের নামে নাম রাখলে কোন অপরাধ বা ঘৃণা হয়না, যে বৃটিশ আমাদের মাঝে সাম্প্রাদোয়িক বিভেদ বপন করে গেছে বাঙ্গালদের স্বধীনতা হরন করে গোলাম বানিয়েছে সে বৃটিশের দেয়া উপাধী-চৌধুরী, রায় বাহাদুর, খান বাহাদুর উপাধীকে আমারা এখন গৌরবের নিশানে পরিগনিত মনে করি সেখানে একজন ভিন্নমতের দলের নেতার নামের সাথে একজন মানেুষের নামের মিল নিয়ে এত হিংস্র মানসিকাতা কেন? কেন জাতিকে আপনারা বিদ্বেষের আগুনে বিভক্ত করে দেশের ক্ষতি করছেন ?


Advertisement

আরও পড়ুন