আজ সোমবার, ২০ আগষ্ট ২০১৮ ইং, ০৫ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



বেতন ভাতার দাবি ।। নগরীতে তিন গার্মেন্টসে শ্রমিক বিক্ষোভ

Published on 14 June 2016 | 4: 21 am

নগরীর পৃথক তিনটি গার্মেন্টস কারখানায় বেতনের দাবিতে শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেছে। ঈদের আগে নির্ধারিত সময়ে বেতন না পেয়ে তারা বিক্ষোভ করে। দিনভর বৃষ্টিতে ভিজে করে তারা এই বিক্ষোভ করে। এদিকে বিক্ষোভের কারণে কারখানাগুলোর উৎপাদন বন্ধ আছে।

বিক্ষোভের এক পর্যায়ে আগ্রাবাদস্থ লাকি প্লাজার বিপরীতে আম্বিয়া গ্রুপের শ্রমিকেরা সড়ক অবরোধ করলে সেখানে পৌনে এক ঘন্টা যান চলাচল বন্ধ ছিল।

চিটাগাং ফ্রেন্ডস অ্যাপারেলস: সিইপিজেডে চিটাগাং ফ্রেন্ডস অ্যাপারেলসে বেতন নির্ধারিত দিনে না দেওয়ায় শ্রমিকদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে শ্রমিকরা বেতনের দাবিতে বিক্ষোভ করে। এরপর নগর পুলিশ, শিল্প পুলিশ ও বেপজার মধ্যস্থতায় বেতন পরিশোধের ঘোষণা দিলে শ্রমিকরা শান্ত হয়। ইপিজেড থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম আজাদ জানান, কারখানাটির শ্রমিকদের গত বছরের বেতনের কিছু ইনক্রিমেন্ট বকেয় ছিল। দিতে দেরি হওয়ায় শ্রমিকরা উত্তেজিত হয়ে পড়ে। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। তাদের আশ্বাস দিয়ে বেপজা কার্যালয়ে মালিক পক্ষের সঙ্গে বৈঠক হয়। এরপর ইনক্রিমেন্টের টাকা এই মাসের ২৪ তারিখ ও আগামী জুলাই মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে প্রদানের সিদ্ধান্ত হয়।

বেপজার মহাব্যবস্থাপক (জিএম) খুরশীদ আলম বলেন, রোববার ওই কারখানার শ্রমিকদের বেতন দেয়ার কথা ছিল। মালিকপক্ষ ব্যাংক থেকে বেতনের টাকা তুলে আনতে পারেননি। তাই দিতে পারেননি। আজ শ্রমিকরা অসন্তোষ প্রকাশ করেছিল। এরপর আমরা মালিক, শ্রমিক প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করি। ইতোমধ্যে বেতন দেওয়া শুরু হয়ে গেছে। পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

আম্বিয়া গ্রুপে শ্রমিক বিক্ষোভ: ডবলমুরিং থানাধীন আগ্রাবাদ লাকি প্লাজার সামনে বকেয়া বেতনের দাবিতে আম্বিয়া গ্রুপের শ্রমিকেরা বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ করেছে। গতকাল সোমবার দুপুরে প্রায় পৌনে এক ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে। এরপর শিল্প পুলিশ ও নগর পুলিশের উপস্থিতিতে মালিকপক্ষ বেতন পরিশোধের আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা অবরোধ তুলে নেয়। ডবলমুরিং থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. শামিম মিয়া জানান, শ্রমিকদের গত মে মাসের বেতন চলতি জুনের ২৩ তারিখ দেয়ার কথা ছিল। কিন্তু কারখানা কর্তৃপক্ষ বেতন না দেওয়ায় উত্তেজিত শ্রমিকেরা বিক্ষোভ করেন। এরপর শিল্প পুলিশ ও নগর পুলিশের উপস্থিতিতে মালিক পক্ষ ১৬ জুন বকেয়া বেতন পরিশোধ এবং জুলাইয়ের ২১ তারিখ চলতি জুনের বেতন দেওয়ার আশ্বাস দিলে শ্রমিকেরা শান্ত হয়ে অবরোধ তুলে নেয়। তিনি জানান, ওই কারখানার পাঁচ শতাধিক শ্রমিক কাজ করে।

গাউছিয়া গার্মেন্ট: পাহারতলী থানাস্থ গাউছিয়া গার্মেন্টসে বেতনের দাবিতে কাজ বন্ধ করে তিন দিন ধরে বিক্ষোভ করছে শ্রমিকরা। কারাখানার প্রধান গেইটে তালা লাগিয়ে তারা বিক্ষোভ করছে। পাহাড়তলী থানার অফিসার ইনচার্জ রঞ্জিত কুমার বড়ুয়া আজাদীকে বলেন, গত মাসের বেতনের দাবিতে কারখানার শ্রমিকরা কাজ বন্ধ করে তিনচারদিন ধরে বিক্ষোভ করছে। শ্রমিকরা কাজ বন্ধ করে দিয়ে বিক্ষোভ করছে কারখানার সামনে। কারখানার মালিকপক্ষের সাথে আমরা কথা বলেছি। কয়েকদিন আগে কারখানার মালিকানা পরির্বতন হয়েছে। ইকবাল নামে আগের মালিক আমজাদ হোসেন নামে এক ব্যবসায়ীর কাছে কারখানাটি বিক্রয় করে দিয়েছে। আমজাদ হোসেন জানিয়েছেন, কারখানার কিছু মাল শিপমেন্টের জন্য আটকে আছে। শিপমেন্ট হয়ে গেলে টাকা পাওয়া যাবে। তবে শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধ করা হবে। এদিকে গাউছিয়া গার্মেন্টসের সামনে শ্রমিকরা অবস্থান করছে।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন