আজ মঙ্গলবার, ১৭ জুলাই ২০১৮ ইং, ০২ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



আলীকে শেষ বিদায়

Published on 11 June 2016 | 5: 14 am

বিশ্বনেতা, ক্রীড়ামোদীসহ লাখো মানুষ শ্রদ্ধাবনত চিত্তে শেষ বিদায় জানালেন সর্বকালের সেরা মুষ্টিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলীকে। যুক্তরাষ্ট্রে তার জন্মশহর কেন্টাকির লুইসভিলে গতকাল শুক্রবার স্থানীয় সময় সকাল ৯টায় শেষ বিদায় অনুষ্ঠান শুরু হয়। এতে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন, মুষ্টিযোদ্ধা মাইক টাইসন, লায়লা আলী, অভিনেতা উইল স্মিথ, কমেডিয়ান বিলি ক্রিস্টালসহ খ্যাতিমানরা অংশ নেন। খবর এএফপি, রয়টার্স ও আলজাজিরার।

৩ জুন অ্যারিজোনার ফিনিক্সের একটি হাসপাতালে ৭৪ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন মোহাম্মদ আলী। দুই দিনব্যাপী আয়োজিত ধর্মীয় অনুষ্ঠানের প্রথম দিন গত বৃহস্পতিবার পারিবারিকভাবে তার জানাজা হয়। গতকালই দাফন করা হয় তাকে। পরে তিনবারের এ বিশ্বচ্যাম্পিয়ন স্মরণে আন্তঃধর্মীয় অনুষ্ঠান হয়।

গতকাল লুইসভিলের রাস্তায় প্রায় দু’ঘণ্টা ধরে চলে মোহাম্মদ আলীর কফিন নিয়ে শোভাযাত্রা। কেভহিল ন্যাশনাল সিমেট্রিতে মোহাম্মদ আলীর মরদেহ নিয়ে যাওয়ার পথে এ শোভাযাত্রায় হাজারো ভক্ত-অনুরাগী তাকে ফুল দিয়ে শেষ শ্রদ্ধা জানান। এ কিংবদন্তির মরদেহ লুইসভিলের প্রধান প্রধান এলাকা প্রদক্ষিণ শেষে যেখানে তিনি বেড়ে উঠেছেন সেই বাড়ি এবং তার নামে গড়ে তোলা জাদুঘরে নিয়ে যাওয়া হয়। শোভাযাত্রা শেষে কেভহিল সিমেট্রিতে মোহাম্মদ আলীকে দাফন করা হয়। অভিনেতা উইল স্মিথ, মুষ্টিযোদ্ধা মাইক টাইসন ও লেনস্ক লিউস এ কিংবদিন্তর কফিন বহন করেন।

গতকাল দুপুরে আন্তঃধর্মীয় স্মরণানুষ্ঠানে কেএফসি ইয়ামি হল কানায় কানায় ভরে যায়। হলের বাইরেও ছিলেন হাজারো ভক্ত-অনুরাগী। এতে অংশ নিতে আমেরিকার বিভিন্ন রাজ্য থেকে মুসলমানরা ছুটে আসেন কেন্টাকিতে। অনুষ্ঠানের জন্য ১৪ হাজার টিকিট ছাড়া হলে এক ঘণ্টার মধ্যেই সব বিক্রি হয়ে যায়। মূল অনুষ্ঠান শুরু হয় স্থানীয় সময় দুপুর ২টায় (বাংলাদেশ সময় মধ্যরাত)। আন্তঃধর্মীয় এ স্মরণ সভায় সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন ও কমেডিয়ান বিলি ক্রিস্টাল যোগ দেন।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় বেলা সোয়া ১২টায় লুইসভিল শহরের ফ্রিডম হলে মোহাম্মদ আলীর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রবাসী বাংলাদেশিসহ হাজারো মানুষ অংশ নেন। তাকে ‘মানবতার প্রতীক’ হিসেবে অভিহিত করে ‘তার কাছ থেকে শেখার’ জন্য বিশ্ববাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তারা। জানাজায় তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়েপ এরদোগানও যোগ দেন।

১৯৬৪ সালে মোহাম্মদ আলী ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। এর আগে তার নাম ছিল ক্যাসিয়াস ক্লে। মুসলমানদের মাঝে অনুপ্রেরণা জোগাতে মুষ্টিযোদ্ধা ও বক্তা হিসেবে বাংলাদেশসহ সারাবিশ্ব ভ্রমণ করেন মোহাম্মদ আলী। বিশ্বে মানবাধিকার আন্দোলনে তিনি বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখেন।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন