কিংবদন্তী আলীর জানাযায় হাজারো মানুষ

সর্বকালের সেরা ক্রীড়াবিদ এবং বক্সিং কিংবদন্তি মোহাম্মদ আলীর দাফন হবে রাতে। তাঁর জন্মস্থান যুক্তরাষ্ট্রের কেন্টাকির লুইসভিলে শুক্রবার সকালে (বাংলাদেশ সময়) আলীর জানাজায় অংশ নেন বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা হাজারো মানুষ।
 
ক্যারিয়ারের শেষ বক্সিং লড়াইয়ে ১৯৮১ সালে উইলি বেস্মানোফকে হারিয়েছিলেন যে স্থানে লুইসভিলের সেই ফ্রিডম হলেই মোহাম্মদ আলি’র শেষ বিদায়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। গত শুক্রবার মৃত্যু’র ঠিক এক সপ্তাহ পর, জন্মস্থানে এ কালজয়ী বক্সারকে শেষ বিদায় জানাতে উপস্থিত হন হাজারো শোকাতুর ভক্ত।
 
মৃত্যুর আগে যেভাবে শেষ ইচ্ছের কথা জানিয়েছিলেন মোহাম্মদ আলী, ঠিক সেভাবেই তাঁর জানাযা হয়েছে। ইমামতি করেন তাঁরই মনোনীত, যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত ইসলামী মনিষী জায়েদ শাকির।
 
 
নিপীড়িত মানুষের পাশে দাঁড়ানো আর অত্যাচারির বিরুদ্ধে আজীবন প্রতিবাদী মোহাম্মদ আলীকে শেষ বিদায় জানাতে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্টাকিতে জমা হয়েছিলেন সারা দুনিয়ার প্রায় ১৪ হাজার মানুষ।
 
প্রিয় শহর কেন্টাকিতেই বাংলাদেশ সময় রাতে তাঁর মরদেহ দাফন করা হবে। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবার জন্য উন্মুক্ত শেষ বিদায়ের সে অনুষ্ঠানে থাকতে পারছেন না মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। তবে সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনসহ রাজনীতিবিদ, ক্রীড়াবিদ এবং বিনোদন জগতের তারকারা অংশ নেবেন।
 
 
বিশিষ্টজন ছাড়াও থাকছেন হাজারো সাধারণ মানুষ, যাদের অধিকারের জন্য সারা জীবন লড়াই চালিয়ে গেছেন তিনবারের বিশ্ব হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়ন, দ্য গ্রেটেস্ট মোহাম্মদ আলি।
শাহাদাৎ আশরাফ শাহাদাৎ আশরাফ

Leave a Reply

Top
%d bloggers like this:
Web Design BangladeshBangladesh Online Market