আজ বৃহঃপতিবার, ১৬ আগষ্ট ২০১৮ ইং, ০১ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



আইএসের বাংলাদেশ প্রধান এখন দেশেই!

Published on 09 June 2016 | 5: 31 am

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের মুখপত্র বলে পরিচিত দাবিক ম্যাগাজিনে শেখ আবু ইব্রাহিম আল হানিফ নামের এক ব্যক্তিকে গত এপ্রিলে আইএসের বাংলাদেশী শাখার প্রধান বলে পরিচিত করা হয়।

আবু ইব্রাহিম আল হানিফের প্রকৃত নাম তামিম চৌধুরী। তিনি একজন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত কানাডীয় নাগরিক। একসময় অন্তারিও উইন্ডসর শহরের বাসিন্দা ছিলেন। কানাডীয় সংবাদমাধ্যম ন্যাশনাল পোস্টে মঙ্গলবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়।

গত এপ্রিলে দাবিকের সর্বশেষ সংস্করণের একটা বড় জায়গাজুড়ে বাংলাদেশে সংগঠনটির তৎপরতার প্রসঙ্গ আলোচনা করা হয়। ওই সংখ্যায় শেখ আবু ইব্রাহিম আল হানিফ নামের এক ব্যক্তির সাক্ষাৎকার ছাপা হয়। দাবিকের দাবি অনুযায়ী হানিফই বাংলাদেশে আইএসের কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছেন।

ন্যাশনাল পোস্টের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, সম্প্রতি বাংলাদেশে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন আইএসের নামে চলছে একের পর এক হত্যাকাণ্ড। সর্বশেষ মঙ্গলবার ঝিনাইদহে হিন্দু পুরোহিত আনন্দ গোপাল গাঙ্গুলীকে হত্যার দায় স্বীকার করেও আইএস। কথিত বার্তা সংস্থা ‘আমাক’কে এ সংক্রান্ত খবর প্রকাশ করা হয়েছে। আর আইএসের আঞ্চলিক শাখার নেতা তামিম চৌধুরীর নেতৃত্বেই বাংলাদেশে এসব হত্যাকাণ্ড চালানো হচ্ছে।

তামিম চৌধুরী সম্পর্কে জানতে ন্যাশনাল পোস্টের প্রতিবেদক ডালহাউসি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেসিলেন্স গবেষণা কেন্দ্রের পোস্ট ডক্টরাল ফেলো অধ্যাপক অমরনাথ অমরাসিংগামের শরণাপন্ন হয়। অমরনাথ বলেন, তিনি (তামিম) উইন্ডসরে থাকতেন। যারা তাকে চিনতেন তারা বলেছেন উনি শান্ত প্রকৃতির মানুষ ছিলেন। তার সম্পর্কে এর বেশি কিছু জানা সম্ভব হয়নি।

বিদেশী যোদ্ধাদের ওপর গবেষণা করছেন অমরনাথ। তিনি জানান, কানাডীয় পুলিশের হয়রানির শিকার হওয়ার অভিযোগ তুলে তামিম বাংলাদেশে ফিরে যান বলে জানতে পেরেছেন। তামিম বাংলাদেশে আইএসের আঞ্চলিক শাখার নেতৃত্ব দিচ্ছেন বলেও তিনি শুনেছেন।

বৈরুত ডেইলি স্টারে প্রকাশিত একটি খবরকে উদ্ধৃত করে ন্যাশনাল পোস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়, তামিম চৌধুরী এখন আলিয়াস শায়েখ আবু ইব্রাহিম আল হানিফ নামে কার্যক্রম চালাচ্ছেন। দাবিক ম্যাগাজিনের সর্বশেষ সংস্করণে তাকে আইএসের বাংলাদেশ শাখার ‘আমীর’ হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। গত এগ্রিলে দাবিক ম্যাগাজিনে হানিফ ওরফে তামিম চৌধুরী হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ‘নোংরা ও গরু পূজাকারী’ হিসেবে উল্লেখ করেন। যারা ইসলামের সশস্ত্র সংস্করণের সঙ্গে যোগ দেবেন না তাদের হত্যারও হুমকি দেন হানিফ।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন