গণপিটুনির নিউজ সংগ্রহ করতে যাওয়া সাংবাদিককে আটক করেছে লোহাগাড়া পুলিশ

মোবাইল চুরির অভিযোগে গণ পিটুনির ঘটনার খবর সংগ্রহ করতে যাওয়া  বিএনএ এর উপজেলা প্রতিনিধি  সাংবাদিক এরশাদ হোসাইনকে অন্য ১৫/২০ জনের সাথে আটক করেছে লোগাগাড়া থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার পদুয়ায় পিবিএন ব্রিকফিল্ডে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, পদুয়াস্থ  লিয়াকত মেম্বারের ইটভাটায় সকালে মহিউদ্দিন(২৫) নামে এক যুবককে মোবাইল ফোন চুরির অভিযোগে আটকিয়ে গণপিটুনি দেয়। এতে সে গুরুতর আহত হয়। ঘটনার খবর পেয়ে ভাটার মালিক, স্থানীয় চেয়ারম্যান ও কয়েকজন সাংবাদিক ওই ভাটায় যান।  এর কিছুক্ষণ পরেই ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত হয়েআহত যুবককে উদ্ধার এবং ইটভাটার মালিক, সাংবাদিকসহ  ১০/১২জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। পরে হাসপাতালে নেয়া হলে ওই যুবক মারা যায় বলে স্থানয়িরা জানিয়েছেন।

লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.শাহজাহান বলেন, স্থানীয় লেয়াকত মেম্বারের মালিকানাধীন ইটভাটায় এক শ্রমিকের একটি মোবাইল চুরি হয়। মহিউদ্দিন এলাকার বেকার যুবক। শ্রমিকরা চুরির জন্য তাকেই সন্দেহ করে। এরপর শ্রমিকরা তাকে ধরে মারধর করে।

ওসি জানান, নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

সাংবাদিক এরশাদ হোসাইন জানান, শনিবারের  ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে একজন মেম্বার প্রার্থীকে হয়রানী করার উদ্দেশ্য প্রতিপক্ষ মেম্বার প্রার্থীর লোকজনের প্ররোচনায় তাকেসহ পুলিশ আটক করে থানায় নিয়ে যায়। তিনি জানান, তিনি ভিলেজ পলিটিক্সের শিকার হয়েছেন।   এ ছাড়া তাকে হয়রানী করার কোন কারণ নেই।  এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.শাহজাহান জানান, আমি থানার বাইরে আছি। ঘটনা যাচাই করা হচ্ছে। অভিযুক্ত না হলে ছেড়ে দেয়া হবে।

সুত্র : বিএনএ, চট্টগ্রাম

শাহাদাৎ আশরাফ শাহাদাৎ আশরাফ

Leave a Reply

Top
%d bloggers like this:
Web Design BangladeshBangladesh Online Market