জয়-সাফাদি বৈঠক সাজানো নাটক: হানিফ

ইসরাইলের ক্ষমতাসীন লিকুদ পার্টির নেতা মেন্দি এন সাফাদির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর ছেলে ও তার তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের বৈঠকের খবর বিএনপির সাজানো নাটক বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ।

শনিবার বিকালে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এ সময় সারাদেশে অনুষ্ঠিত পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে বলেও দাবি করেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের এ মুখপাত্র।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বিভিন্ন মিডিয়ার মাধ্যমে জয়-সাফাদি বৈঠকের খবরটি আমাদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। বিএনপির নেতারা লন্ডনে বসে সাফাদির সঙ্গে জয়ের বৈঠক হয়েছে, এমন নাটক সাজাচ্ছেন।’

হানিফ বলেন, ‘বিএনপি নেতা আসলাম চৌধুরী আটক হওয়ার পর তারা যে সরকার উৎখাতের গভীর ষড়যন্ত্র করছিল, তার বিভিন্ন তথ্য ফাঁস হওয়ায় জনগণের দৃষ্টি অন্যদিকে সরিয়ে নিতে এ নাটক সাজানো হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে প্রমাণ হয়েছে বিএনপি ইসরাইলকে নিয়ে গভীর ষড়যন্ত্র করছে।’

তিনি বলেন, ‘বিবিসির সাক্ষাৎকারটি আমি দেখেছি। এ সাক্ষাৎকারটি নিয়েছে বিএনপির লন্ডন প্রবাসী এক নেতা জ্যাকব মিল্টন। সাক্ষাৎকারটিতে মিল্টন অনেকটা ইচ্ছা করেই সাফাদিকে প্রশ্ন করেন- এর আগে আপনার সঙ্গে বাংলাদেশের কারও সাক্ষাৎ হয়েছে কি না? সাফাদি জবাবে বলেছে- হয়েছে। তার এ ধরনের প্রশ্নে বোঝা যায় এটি সাজানো।’

প্রসঙ্গত, ২৭ মে শুক্রবার বিবিসি বাংলায় সজীব ওয়াজেদ জয়ের সঙ্গে ইসরায়েলের ক্ষমতাসীন লিকুদ পার্টির নেতা মেন্দি এন সাফাদির সঙ্গে চার/পাঁচ মাস আগে ওয়াশিংটনে একটি বৈঠক হয়েছে মর্মে সংবাদ প্রকাশ হয়। সেখানে সাফাদির একটি সাক্ষাৎকারও প্রকাশ করা হয়।

এই বৈঠকের পটভূমি ব্যাখ্যা করে মেন্দি এন সাফাদি জানান, চার/পাঁচ মাস আগে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে সাফাদি তার এক বন্ধুর মাধ্যমে জয়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

সাফাদি বলেন, তিনি যখন শেষবার ওয়াশিংটন ডিসিতে যান, সে সময় একজন আমেরিকান বন্ধু দুজনের মধ্যে এই বৈঠকটির আয়োজন করেন। ওই বন্ধু তাকে জানান, যার সঙ্গে দেখা হবে তিনি বাংলাদেশের একজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি। এরপর তিনি ওয়াশিংটন ডিসিতে সজীব ওয়াজেদের অফিসে যান।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, বিবিসি বাংলার কোনো সাংবাদিক সাফাদির সাক্ষাৎকার নেননি। তার সাক্ষাৎকারটা নিয়েছে জ্যাকব মিল্টন। সে কে? তারা নাটকটা সিডি বানিয়ে বিবিসি বাংলাকে দিয়েছে এবং তাদের (বিবিসি) ফিচার করতে বলেছে। বিবিসি যদি সাক্ষাৎকার নিত, সেটা সাংবাদিকদের নিয়েই নিত এবং নিঃসন্দেহে তার গুরুত্ব থাকতো।

বিবিসির এমন সংবাদে প্রতিবাদ করা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘বিবিসির মত একটা অনলাইন পত্রিকা একজনের ধার করা ইন্টারভিউ নিয়ে প্রচার করেছে যা কারো জন্যই কাম্য নয়। সংবাদ জগতের জন্যও কাম্য নয়। এটা দুঃখজনক। আমরা এর প্রতিবাদ জানাবো।’

সংবাদ সম্মেলনে পঞ্চম ধাপে অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচন প্রসঙ্গে হানিফ বলেন, কিছু বিছিন্ন ঘটনা ছাড়া পঞ্চম ধাপের ইউপি নির্বাচনও সুষ্ঠু হয়েছে।

বিএনপির অভিযোগ বিষয়ে তিনি বলেন, বিএনপি এ নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্যেই নির্বাচনে অংশ নিয়েছিল।

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেন, স্বাস্থ্য সম্পাদক ডা. বদিউজ্জামান ভূঁইয়া ডাবলু, ক্রীড়া সম্পাদক দেওয়ান শফিউল আরেফিন টুটুল, কার্যনির্বাহী সদস্য এসএম কামাল হোসেন, সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ।

Mahabubur Rahman Mahabubur Rahman

Leave a Reply

Top
%d bloggers like this:
Web Design BangladeshBangladesh Online Market