আজ বৃহঃপতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৮ ইং, ০৪ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



জাপানের সঙ্গে বিশেষ সম্পর্ক আরও জোরদার হবে: প্রধানমন্ত্রী

Published on 29 May 2016 | 3: 30 am

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ১৯৭১ সালে যুদ্ধ বিধ্বস্ত বাংলাদেশ পুনর্গঠনে সব ধরনের সহায়তা নিয়ে এগিয়ে এসেছিল জাপানের সরকার এবং প্রতিটি লোক নাগরিক। আশা করছি, জাপানের সঙ্গে আমাদের বিশেষ সম্পর্ক দিনে দিনে আরও জোরদার হবে।

শনিবার জাপানের রাজধানী টোকিওতে বাংলাদেশ দূতাবাসের নতুন চ্যান্সারি ভবন উদ্বোধনকালে এ কথা বলেন তিনি।খবর বাসস’।

প্রায় ১০০ কোটি টাকা ব্যয়ে ৭১৪ বর্গমিটার এলাকায় টোকিও’র কেন্দ্রস্থলে কিওইচো, ছিওদা-কু এলাকায় চ্যান্সারি ভবনটি নির্মাণ করা হয়েছে।

ভবনটি উদ্বোধনকালে শেখ হাসিনা বলেন, ১৯৭৩ সালে বঙ্গবন্ধুর সফরের মধ্য দিয়ে জাপানের সঙ্গে বন্ধুত্বের ভিত্তি স্থাপিত হয়েছিল।

তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধকালে জাপানের অবদান বিশেষ করে আমাদেরকে সহায়তা দেয়ার জন্য টিফিনের অর্থ বাঁচিয়ে জাপানী শিশুদের অর্থ সংগ্রহ করেছিল।

তিনি আরও বলেন, স্বাধীনতা লাভের পর জাপান যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশটির পুনর্গঠনে সব ধরনের সহায়তা নিয়ে এগিয়ে এসেছিল। জাপান সরকার এবং জাপানের প্রতিটি লোক আমাদের জন্য তাদের সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিল।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আর্থ-সামাজিক ও উন্নয়নের বিভিন্ন ক্ষেত্রে দুই দেশের মধ্যে বিদ্যমান দীর্ঘ দিনের সম্পর্ক আরও জোরদার করতে তার সরকার সচেষ্ট রয়েছে।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করেন, হোটেল সোনারগাঁও, যমুনা সেতু, রূপসা সেতু এবং পদ্মা সেতু নির্মাণে জাপানের ব্যাপক অবদান রয়েছে।

তিনি বলেন, জাপান আমাদের কক্সবাজার জেলার মহেশখালীর মাতারবাড়িতে কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প নির্মাণ করছে। তারা আমাদের মেট্রোরেল প্রকল্পসহ অন্যান্য অবকাঠামোগত উন্নয়ন প্রকল্পেও সহযোগিতা করছে।

প্রধানমন্ত্রী তাকে জি-৭ বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য জাপানের প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন