রোয়ানুর আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত সন্দ্বীপবাসীদের পাশে দাঁড়ানো প্রসংঙ্গে

:: শাহাদাৎ আশরাফ :: মন্তব্য প্রতিবেদন ::
সন্দ্বীপ আমাদের জন্মভূমি। জন্মভূমির সুখে-দুখে পাশে থাকা নৈতিক দায়িত্ব ও কর্তব্যের মধ্যেই পড়ে। তবে সাধারণ আমজনতা আর নেতৃত্বে থাকা বা লিডিং এ থাকা সন্দ্বীপ সন্তানদের দায়িত্ব ও কর্তব্য এক নয় ।
গত দুদিন ধরে বিভিন্ন লেখকের ব্যাগ্তিগত অনুভূতিতে বারবার সন্দ্বীপ এসোসিয়েশন চট্টগ্রাম ও সন্দ্বীপ এডুকেশন সোসাাইটি চট্টগ্রামের নাম সাথে শত শত সন্দ্বীপ নামধারী সংগঠনের কথা উঠে এসেছে । ডিজিটাল যুগ তার উপর সামাজিক যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম ফেইসবুকের কল্যাণে মানুষ এখন সব প্রসঙ্গেই তার মত, অনূভূতি শেয়ার করতে পারে। আমি একজন সাধারণ সংবাদকর্মী হিসেবে মনে করি এখন রাজনৈতিক নেতাদের বা সামাজিক সংগঠনের নেতাদের কর্মকান্ডে স্বচ্ছতা ও দায়বদ্ধতা আগের চেয়ে অণেক অনেক বেড়ে গেছে। যাক প্রসংঙ্গে ফিড়ে আসি।
সন্দ্বীপ এসোসিয়েশন চট্টগ্রাম : সামাজিক যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম ফেইসবুক প্রশ্ন উঠেছে সাম্প্রতিক সময়ে সন্দ্বীপের উপড় দিয়ে ঘটে যাওয়া রোয়ানুর তান্ডবে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাড়ানো কি (এসোসিয়েশন নেতাদের দাবী এটি নাকি সন্দ্বীপের মাদার সংগঠন) মাদার সংগঠন বা মিনি পার্লামেন্ট খ্যাত সন্দ্বীপ এসোসিয়েশনর কর্তব্যের মধ্যে পড়েনা? এই নিয়ে অনেক লেখালেখি চোখে পড়ল তবে সন্দ্বীপ এসোসিয়েশনের বর্তমান নেতৃবৃন্দেরও চোখে পড়ার কথা। কিন্তু এই নিয়ে কোন কর্মসূচী চোখে পড়লনা। কেন? নেতৃবৃন্দ বলতে পারেন গঠনতন্ত্রে এরকম কাজের কথা বলা নেই অথবা আগে এই ধরণের কাজ এসোসিয়েশন করে নাই।
প্রিয় ও শ্রদ্ধাভাজন নেতৃত্ব- দিন বদলাইছে।
আগের ধ্যান ধারনা নিয়ে সমাজ সেবা হবেনা। অনেকে কষ্ট, অনেক অর্থ ব্যায় করে সন্দ্বীপবাসীর সুখে দুখে পাশে থাকার অঙ্গিকার করে নির্বাচনী বৈতরণী পাড় করে নেতৃত্ব অর্জন করে এখন হাল ছেড়ে দেয়া আমজনতা মেনে নেবেনা। তবে ৩ জন নেতার বক্তব্য দেখে আরো হতাশ হলাম- বর্তমান সহ সভাপতি ও দীর্ঘনের সাবেক সেক্রেটারী  মোশাররফ হোসাইন এই প্রসঙ্গে কাজী শিহাব এর এক লেখার জবাবে মন্তব্যে লিখেছেন “ : Kazi shihab. Thanks for your feelings and opinions. Association already took some necessary steps. They have written DC Chittagong, water resources minister, Relief and disaster minister, secretary both the ministry and Executive Engineer water Development board ctg to take necessary action for the affected people of sandwip.
এর জবাবে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক Mohammad Muslem Uddin Munna লিখলেন ‘‘ Mosharraf Hossain bhai, Thanks what ever the great works you have done but the demand from the mass people is not to write to the government but to involve, initiate and lead the people participatory programs using the fund of the association and the resources collecting from and involving the able people. Coastal Embankment Improvement Project থেকে সন্দ্বীপ বাদ পরলো সে খবর কি মিনি পার্লামেন্টের কাছে আছে? জলবায়ূ ফান্ডের মিলিয়ন মিলিয়ন ডলার এর কোন ভাগ কি সন্দ্বীপের ভাগ্যে জুটেছে? ডেল্টা ২১০০ প্রজেক্টে সন্দ্বীপের অবস্থান কি জানা আছে ? রোয়ানো আক্রমনের আগে DC , Secretary বা Minister কে কয়টা চিঠি দিয়া হয়েছে বা কয়বার মিটিং এ বসা হয়ছে ভাঙ্গা, কাটা বা ছেঁড়া বেঁড়ীবাঁধ নির্মানের তাগিদ দিতে? সন্দ্বীপে ঘটে যাওয়া অসংখ্য অনাকাংখিত ঘটনার প্রতিবাদে কি leading ভূমিকা ছিল ফাদার বা মাদারের ? সন্দ্বীপ পৌরসভা, ইউনিয়ন পরিষদ বা উপজিলা যে বাজেট ঘোষনা করে তা নিয়ে কোন পরামর্শ, প্রতিবাদ বা প্রশংসা কি পার্লামেন্টের দায়িত্বের মধ্যে পড়ে না ? এ পার্লামেন্ট কি গত একদশকে ও সন্দ্বীপ বিষয়ক সার্বজনিন কোন আলোচনা অনুষ্ঠানের ও আয়োজন করছে যার রেজাল্ট ডকোমেন্টেড ?
সন্দ্বীপ এডেুকেশন সোসাইটি, চট্টগ্রাম : প্রতিষ্ঠাতাদের  উদ্দেশ্য ও গঠনতন্ত্র মোতাবেক সন্দ্বীপের ছাত্র-ছাত্রীদের পাশে দাঁড়ানোই এই সংগঠনের মূল কাজ। কিন্তু বিগত দিনের ন্যায় বর্তমান আহবায়ক কমিটিও একই রাস্তায় হাটছেন। সব করছেন শুধু ছাত্র-ছাত্রীদের কল্যাণ ছাড়া। সর্বশেষ ২০১৪ (এর আগেও অনিয়মিত) সালে কৃতি ছাত্র-ছাত্রী সংবর্ধনা ও শিক্ষা ঋণ বিতরণ হল। ২০১৫ তে আর খবর নেই। অথচ ব্যাংকে লক্ষ লক্ষ টাকা। এই টাকা ব্যাংকে রাখার জন্য? ২০১৪ সালের গরীব-মেধাবী ছাত্রটি ঋণ পেল তার পড়ালেখার সহযোগীতা হল কিন্তু ১ বছরে কি তার লেখা পড়া শেষ হয়ে গেল। এটাতো গাছে তুলে দিয়ে নীচ থেকে মই সড়িয়ে নেয়ার মত হল। দায়ীদের বিচার চাই। ২০১৬ সালে কি হবে তাও অনিশ্চিত। শিক্ষা ঋণ আর  কৃতি ছাত্র সংবর্ধনার ব্যাপারে কথা তুললে অজুহাত আর অজুহাত। শুনলাম আগামী সাধারন সভা ও এজিএমের জন্য রঙ্গিন ম্যাগাজিন হচ্ছে।
একটা দাবী- ম্যাগাজিন ও ঝাঁকঝমক পূর্ণ এজিএমের বাজেটটি সন্দ্বীপের সেই ছাত্র-ছাত্রী বোনটির বই কিনার জন্য খরচ করুন যে কিনা রোয়ানুর তান্ডবে তার পড়ার বই হাড়িয়েছে।
ধন্যবাদ : এ পর্যন্ত যারা রোয়ানুর আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত সন্দ্বীপবাসীদের ত্রান বিতরণ শুরু করেছেন এবং আহসান জামিল ফাউন্ডেশন সহ যারা বা যেই সংগঠন ত্রান দিতে যাচ্ছেন।
শাহাদাৎ আশরাফ শাহাদাৎ আশরাফ

Leave a Reply

Top
%d bloggers like this:
Web Design BangladeshBangladesh Online Market