আজ বুধবার, ১৫ আগষ্ট ২০১৮ ইং, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



ব্লগার হত্যাকাণ্ড ৬ জঙ্গিকে খুঁজছে পুলিশ, পুরস্কার ঘোষণা

Published on 20 May 2016 | 3: 49 am

সাম্প্রতিক সময়ের ব্লগার, প্রগতিশীল লেখক ও প্রকাশক হত্যাকাণ্ডে জঙ্গি সংগঠন আনসার উল্লাহ বাংলা টিমের (এবিটি) ছয় সদস্যকে খুঁজছে পুলিশ। তাদের ধরিয়ে দিতে ডিএমপির পক্ষ থেকে মোট ১৮ লাখ টাকা পুরস্কারও ঘোষণা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ওয়েবসাইটে এই ছয়জনের নাম-ঠিকানা ও ছবি প্রকাশ করা হয়। তারা হলেন- শরীফ, সেলিম, সিফাত, রাজু, সিহাব ও সাজ্জাদ।

ডিএমপির ওয়েবসাইটে শরীফকে এবিটির গুরুত্বপূর্ণ শীর্ষ সংগঠক উল্লেখ করে বলা হয়েছে, সে সংগঠনে শরিফুল ওরফে সাকিব ওরফে শরিফ ওরফে সালেহ ওরফে আরিফ ওরফে হাদী-১ নামে পরিচিত। তার বাড়ি বৃহত্তর খুলনা অঞ্চলে। সে সংগঠনের সদস্যদের সামরিক প্রশিক্ষণ দেয়া ছাড়াও আইটি বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে। লেখক ও ব্লগার অভিজিৎ রায় হত্যাকাণ্ডের তদন্তে সিসিটিভি ফুটেজে তার উপস্থিতি ধরা পড়ে। তাকে ধরিয়ে দিতে ৫ লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছে পুলিশ।

এবিটির অন্যতম সংগঠক সেলিম সংগঠনে ইকবাল ওরফে মামুন ওরফে হাদী-২ নামে পরিচিত। সে শুদ্ধ উচ্চারণে কথা বলে। তার উচ্চতা ৫ ফুট ১০ ইঞ্চি। চশমা পড়ে। তার গায়ের রং শ্যামলা বর্ণের। বাড়ি উত্তরবঙ্গে। সে সংগঠনের সদস্যদের সামরিক, আইটি ও কথিত জিহাদ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে। তার সম্পর্কে তথ্যদাতাকেও ৫ লাখ টাকা পুরস্কার দেয়া হবে বলে জানিয়েছে ডিএমপি।

এবিটির গুরুত্বপূর্ণ সদস্য সিফাত সংগঠনে সামির ওরফে ইমরান নামে পরিচিত। তার বাড়ি সিলেটে। সে এবিটির বিভিন্ন অপারেশনে অংশগ্রহণ করে। তার সম্পর্কে তথ্যদাতাকে ২ লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছে পুলিশ।

এবিটির গুরুত্বপূর্ণ সদস্য রাজু। তিনি আবদুস সামাদ ওরফে সুজন ওরফে সালমান ওরফে সাদ নামে পরিচিত। তার বাড়ি কুমিল্লায়। সে সংগঠনের সদস্যদের জিহাদে উদ্বুদ্ধকরণের বিষয়ে ধর্মীয় আলোচনা বা বয়ান দিয়ে থাকে। এবিটির সক্রিয় সদস্য হিসেবে বিভিন্ন অপারেশনে অংশগ্রহণ করে। তাকে পেতে ২ লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ।

ডিএমপি জানায়, সিহাব এবিটিতে শিহাব ওরফে সুমন ওরফে সাইফুল নামে পরিচিত। তার বাড়ি চট্টগ্রাম অঞ্চলে। প্রকাশক আহম্মেদ রশীদ টুটুল হত্যাচেষ্টায় সে সরাসরি অংশগ্রহণ করে। সে এবিটির বিভিন্ন অপারেশনে অংশগ্রহণ করে। তাকেও ধরিয়ে দিতে কিংবা তার সম্পর্কে তথ্য দিতে পারলে ২ লাখ পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে।

সাজ্জাদ এবিটিতে সজিব ওরফে সিয়াম ওরফে শামস নামে পরিচিত। তার বাড়ি ঢাকার পার্শ্ববর্তী কোনো জেলায়। সে সাভারে শান্তা মারিয়াম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র রিয়াদ মোর্শেদ বাবু হত্যাকাণ্ডেও সরাসরি অংশগ্রহণ করে। এবিটির এই সদস্যকেও ধরিয়ে দিতে ২ লাখ টাকা পুরস্কারের ঘোষণা দিয়েছে ডিএমপি।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন