আজ সোমবার, ১৬ জুলাই ২০১৮ ইং, ০১ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ



গোবিন্দগঞ্জ পৌর মেয়রের নিখোঁজ ছেলের লাশ উদ্ধার

Published on 25 September 2015 | 1: 31 pm

পবিত্র ঈদুল আজহার দিন মিলল গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি আতাউর রহমান সরকারের নিখোঁজ ছেলে আশিকুর রহমান সাম্যের (১৬) লাশ। শুক্রবার ভোরে গোবিন্দগঞ্জের বর্ধনকুঠি বটতলা মোড়ে একটি সেপটিক ট্যাংকে সাম্যের লাশ পাওয়া যায়।

এ ঘটনায় দুই নারীসহ আটজনকে আটক করা হয়েছে। এরা হলেন- উপজেলার বর্ধনকুঠি এলাকার তাজুল ইসলামের ছেলে ও সাম্যের সহপাঠী আল-আমিন (১৮), শাহরিয়ার খান হৃদয় (১৭), হৃদয়ের মা রাবেয়া বেগম (৪৫), বড় বোন রুনা বেগম (২৫), ভগ্নিপতি রফিকুল ইসলাম (৩০), চাচাত ভাই সুজন মিয়া (১৮), খালাতো ভাই শিমুল (২০) ও জাকির হোসেন (১৭)।

সাম্যের পরিবার জানায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে গোবিন্দগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র সাম্যের সহপাঠী শাহরিয়ার তাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর থেকে সে নিখোঁজ ছিল।

অনেক খোঁজাখুজি করে সন্ধান না মেলায় সাম্যের বাবা আতাউর রহমান ওইদিন সন্ধ্যায় গোবিন্দগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি এবিএম জাহিদুল ইসলাম বলেন, পুলিশ বৃহস্পতিবার রাতেই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আট জনকে আটক করে।

পরে তাদের দেয়া তথ্য অনুসারে সাম্যের লাশ উদ্ধার করা হয়। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

শাহরিয়ার খান হৃদয়ের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে ওসি জানান, প্রায় এক সপ্তাহ আগে মোবাইল ফোন নিয়ে সাম্যের সঙ্গে তার ঝগড়া হয়। এর জেরে সে ও জাকির মিলে সাম্যর হাত-পা বেঁধে গলায় রশি পেঁচিয়ে হত্যা করে।

এদিকে এ ঘটনায় ক্ষুদ্ধ জনতা শাহরিয়ার ও ৯ নম্বর ওর্য়াড কাউন্সিলর জয়নাল আবেদিনের বাড়িঘর ভাংচুর করে আগুন লাগিয়ে দেয়।


এখানে খুজুন


আরও পড়ুন